default-image

পেরুর ইনকা সভ্যতার প্রাচীন নিদর্শন মাচুপিচু প্রায় আট মাস পর খুলে দেওয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর পর দর্শনার্থীদের জন্য এটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। আজ সোমবার বিবিসির প্রতিবেদেন এ তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।  

আন্দিজ পর্বতমালার এই নিদর্শন খুলে দেওয়া উপলক্ষে গতকাল রোববার প্রাচীন কিছু আচার-অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পেরুর দর্শনীয় স্থানের মধ্যে এটিই সবচেয়ে জনপ্রিয়।

বিজ্ঞাপন

মাচুপিচু খুললেও স্বাস্থ্য সুরক্ষার কারণে দৈনিক দর্শনার্থীর সংখ্যা কমিয়ে ফেলা হয়েছে। এখন প্রতিদিন ৬৭৫ জন এখানে যেতে পারবেন। করোনা শুরুর আগের তুলনায় দর্শকের এ সংখ্যা প্রায় ৩০ শতাংশ। সারা বিশ্বের পর্যটনের অন্যতম জনপ্রিয় এ স্থানটি ১৯৮৩ সালে ইউনেসকোর ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ হিসেবে স্বীকৃতি পায়।

যুক্তরাষ্ট্রের এক প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষক ১৯১১ সালে মাচুপিচুকে নতুন করে বিশ্বের নজরে নিয়ে আসেন। মাচুপিচু শব্দের অর্থ পুরোনো পাহাড়। ইনকা সম্রাট পাচাকুটির জন্য এখানে স্থাপনা নির্মাণ করা হয়েছিল। এ অঞ্চলে স্পেনের অভিযানের পর মাচুপিচু পরিত্যক্ত হয়।

পেরুর বৈদেশিক বাণিজ্য এবং পর্যটনমন্ত্রী রোসিও ব্যারিওস গতকাল বলেন, আজ থেকে মাচুপিচুর দ্বার আবার খুলল। যথেষ্ট দায়িত্ব ও সতর্কতা মেনেই এটি খুলে দেওয়া হলো।

মন্তব্য পড়ুন 0