default-image

লাতিন আমেরিকার শীর্ষ ধনী কার্লোস স্লিম করোনাভাইরাসে (কোভিড–১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। তবে উপসর্গ খুব সামান্য। স্লিমের ছেলে এক টুইট বার্তায় এ কথা জানিয়েছেন।

যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়, মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদরের (৬৭) করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ার এক দিন পরই কার্লোস স্লিমের বিষয়টি জানা গেল। মেক্সিকোর এই ধনকুবের দেশটির টেলিকম খাতের শীর্ষ ব্যবসায়ী।

কার্লোস স্লিমের ছেলে কার্লোস স্লিম ডোমিট গতকাল সোমবার টুইটবার্তায় জানান, তাঁর বাবা এক সপ্তাহ ধরে কোভিডের মৃদু উপসর্গে ভুগছেন। তিনি ভালো আছেন। তাঁর শারীরিক অবস্থান উন্নতি হচ্ছে। তাঁকে মেক্সিকোর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউট্রিশনে ভর্তি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ফোর্বস সাময়িকীর ২০২০ সালের তথ্য অনুযায়ী, স্লিমের মূল ব্যবসা টেলিযোগাযোগ খাতে। মেক্সিকোর বৃহত্তর টেলিযোগাযোগ সেবাদাতা আমেরিকা মোবাইলের নিয়ন্ত্রণ স্লিম পরিবারের দখলে। তিনি ৫ হাজার ২০০ কোটি মার্কিন ডলারের সম্পদের মালিক।

মেক্সিকোয় গত বছর দেশটিতে করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে দেশটিকে বাজে সময়ের মুখোমুখি হতে হয়েছে। দেশটির হাসপাতালগুলো করোনা রোগীতে ভরে গেছে। দেশটিতে সংক্রমণের হার কমার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। বিশ্বে করোনাভাইরাসের সবচেয়ে ভয়াবহ সংক্রমণে শিকার দেশগুলোর অন্যতম মেক্সিকো।

দেশটিতে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৭ লাখ ছাড়িয়ে গেছে এবং দেড় লাখের বেশি মানুষ মারা গেছেন।

প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদর মেক্সিকোতে টিকা পেতে রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তির ঘোষণা দিয়েছেন। চুক্তি অনুযায়ী, দুই মাসের মধ্যে দেশটিতে ২ কোটি ৪০ লাখ ডোজ স্পুটনিক-ভি টিকা সরবরাহ করবে রাশিয়া।

দক্ষিণ আমেরিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন