default-image

আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আইএসকে মদদ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মার্কিন দম্পতির বিরুদ্ধে। স্থানীয় সময় গত বুধবার আইএসে যোগ দিতে ইয়েমেনে যাওয়ার চেষ্টার সময় আটক হয়েছেন তাঁরা। স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার তাঁদের বিরুদ্ধে আদালতে দেওয়া হয় অভিযোগপত্র। খবর এএফপির।

যুক্তরাষ্ট্রের অ্যালাবামা থেকে আসা জেমস ব্র্যাডলি (২০) ও অরোয়া মুথানাকে (২৯) কার্গো জাহাজে ওঠার চেষ্টা করার সময় বুধবার নিউ জার্সিতে আটক করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ বলছে, ২০১৯ সাল থেকে ব্র্যাডলির মধ্যে সহিংস মনোভাব দেখা গেছে। গত বছর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কৌশলে তাঁর কাছ থেকে আইএস জঙ্গিদের মতাদর্শে বিশ্বাস করার কথা জেনে নেয়। তিনি বারবার ওয়েস্ট পয়েন্টে যুক্তরাষ্ট্রের মিলিটারি একাডেমিতে হামলার পরিকল্পনার কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ব্র্যাডলির বন্ধুকে ২০১৯ সালে তালেবান জঙ্গি দলে যোগ দেওয়ার পরিকল্পনার জন্য আফগানিস্তানে যাওয়ার পথে আটক করা হয়। সে সময় থেকে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার (এফবিআই) নজরে রয়েছেন তিনি।

এফবিআই বলছে, ব্র্যাডলি বারবারই বিদেশে যাওয়া ও আইএসে যোগ দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। স্ত্রী মুথানাকে নিয়ে ব্র্যাডলি ইয়েমেনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। ইয়েমেনে গিয়ে আইএসে যোগ দিতে না পারলে সোমালিয়ায় গিয়ে আল শাবাব জঙ্গি দলে যোগ দেবেন বলেও জানান ব্র্যাডলি।

বিদেশি জঙ্গি দলকে সমর্থন ও ষড়যন্ত্রের অভিযোগে ব্র্যাডলি ও মুথানার ২০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন