অবতরণের আগে ডেনভারের আকাশে দুর্ঘটনাকবলিত উড়োজাহাজ
অবতরণের আগে ডেনভারের আকাশে দুর্ঘটনাকবলিত উড়োজাহাজছবি: রয়টার্স

মার্কিন বিমান সংস্থা ইউনাইটেড এয়ারলাইনস তাদের ২৪টি বোয়িং ৭৭৭ উড়োজাহাজ আকাশে না ওড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গত শনিবার আকাশে ওড়ার পর ইউনাইটেড এয়ারলাইনসের বোয়িং ৭৭৭-২০০ উড়োজাহাজের ইঞ্জিনে আগুন লেগে যন্ত্রাংশ ঘরবাড়ির ওপর খসে পড়ে। এরপর ইউনাইটেড এয়ারলাইনস এমন সিদ্ধান্ত নিল। খবর রয়টার্স ও বিবিসির।

শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের ডেনভার থেকে হাওয়াই যাওয়ার পথে ইউনাইটেড এয়ারলাইনসের বোয়িং ৭৭৭-২০০ উড়োজাহাজের দুই ইঞ্জিনের একটি থেকে আগুন আর ধোঁয়া বের হতে শুরু করে। কিছুক্ষণ পর নিচে থাকা বাড়িঘর, রাস্তা ও পার্কে খসে পড়তে থাকে ইঞ্জিনের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ। শেষ পর্যন্ত কোনো রকমে জরুরি অবতরণ করে উড়োজাহাজটি। একরকম ‘নিশ্চিত মৃত্যু’র মুখ থেকে রক্ষা পান  ২৪১ জন আরোহী।

শনিবারের দুর্ঘটনা নিয়ে দ্য ন্যাশনাল ট্রান্সপোর্টেশন সেফটি বোর্ডের প্রাথমিক অনুসন্ধানে দেখা গেছে, উড়োজাহাজটির ডান পাশের ইঞ্জিনটি বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে উড়োজাহাজের মূল কাঠামোতে তেমন ক্ষতি হয়নি।

এ ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় জাপান সব আন্তর্জাতিক বিমান সংস্থার প্রতি  ‘প্র্যাট অ্যান্ড হুইটনি ৪০০০’ ইঞ্জিনচালিত বোয়িং ৭৭৭ উড়োজাহাজগুলো না ওড়ানোর অনুরোধ জানিয়েছে। দুর্ঘটনার কবলে পড়া ওই উড়োজাহাজও এই ইঞ্জিনে চলছিল। বোয়িং বলেছে, তারা জাপানের ওই সিদ্ধান্তের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে এবং দুর্ঘটনার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত ওই ইঞ্জিনচালিত ৭৭৭ ফ্লাইটের সব কটি আকাশে না ওড়ানোর সুপারিশ করেছে। উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি আরও বলেছে, বর্তমানে তাদের ওই ইঞ্জিনচালিত ৬৯টি বোয়িং ৭৭৭ উড়োজাহাজ বিশ্বজুড়ে চলাচল করছে।

শনিবারের দুর্ঘটনা নিয়ে দ্য ন্যাশনাল ট্রান্সপোর্টেশন সেফটি বোর্ডের প্রাথমিক অনুসন্ধানে দেখা গেছে, উড়োজাহাজটির ডান পাশের ইঞ্জিনটি বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে উড়োজাহাজের মূল কাঠামোতে তেমন ক্ষতি হয়নি।

বিজ্ঞাপন

দুর্ঘটনাকবলিত উড়োজাহাজের আরোহীদের মধ্যে ২৩১ জন যাত্রী ও ১০ ক্রু ছিলেন। তবে তাঁরা কেউ আহত হয়েছেন বলে জানা যায়নি। উড়োজাহাজটির ভেতরের ক্যামেরায় ধারণ করা একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, আকাশে উড্ডয়নরত বোয়িং ৭৭৭-২০০-এর ডান পাখায় আগুন জ্বলছে। বের হচ্ছে ধোঁয়া। এ অবস্থায়ই সবেগ ছুটে চলেছে সেটি।

জাপান সব আন্তর্জাতিক বিমান সংস্থার প্রতি ‘প্র্যাট অ্যান্ড হুইটনি ৪০০০’ ইঞ্জিনচালিত বোয়িং ৭৭৭ উড়োজাহাজগুলো না ওড়ানোর অনুরোধ জানিয়েছে। দুর্ঘটনার কবলে পড়া ওই উড়োজাহাজও এই ইঞ্জিনে চলছিল।

ওই ঘটনার পর ইউনাইটেড এয়ারলাইনস এক বিবৃতিতে জানায়, ডেনভার থেকে ফ্লাইট ইউএ ৩২৮ হনুলুলু যাচ্ছিল। উড্ডয়নের অল্প পর এটির একটি ইঞ্জিন অকেজো হয়ে যায়। তবে ফ্লাইটটি নিরাপদে ডেনভার ফিরে জরুরি অবতরণ করেছে। পরে উড়োজাহাজটির অধিকাংশ যাত্রীকে নতুন ফ্লাইটে গন্তব্যে পাঠানো হয়। যাঁরা তাৎক্ষণিকভাবে নতুন ফ্লাইটে গন্তব্যে যেতে চাননি, তাঁদের আবাসিক হোটেলে থাকার বন্দোবস্ত করা হয়েছে।

ইঞ্জিনে আগুন লাগার পর সহায়তা চেয়ে উড়োজাহাজটির ভেতর থেকে পাইলট জরুরি বার্তা পাঠান।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন