default-image

ইন্টারনেটের গতি কম পেলে অনেকেই ক্ষোভে সেবাদাতা বদলে ফেলেন। কিন্তু ক্যালিফোর্নিয়ার ৯০ বছর বয়সী অ্যারন এম ইপসটেইন যা করেছেন, তা রীতিমতো বিস্ময়কর। ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে তিনি প্রায় সাড়ে ৮ লাখ টাকা (১০ হাজার ডলার) খরচ করে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়েছেন।

প্রায় ছয় দশকের বেশি সময় ধরে এটিঅ্যান্ডটির গ্রাহক অ্যারন। তবে এখনকার নেটফ্লিক্সের মতো নানা স্ট্রিমিং সেবা চালু হওয়ার পর থেকে ইন্টারনেটের গতি নিয়ে খুবই বিরক্ত ছিলেন। অনেকের মতোই করোনা মহামারির সময়ে তিনি টিভি সিরিজ ও ছবি দেখে সময় কাটানোর পরিকল্পনা করেছিলেন। কিন্তু তাঁর বাড়িতে ইন্টারনেটের যে গতি, তাতে স্ট্রিমিং সেবা চালানো রীতিমতো কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়।

এবিসি নিউজকে অ্যারন বলেন, তিনি দ্রুতগতির ইন্টারনেট পেতে হালনাগাদের জন্য এটিঅ্যান্ডটির সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তবে তাঁকে বলা হয়, ওই এলাকায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা এখন পাওয়া যাবে না।

বিজ্ঞাপন

দীর্ঘদিন ধরে ব্যবহার করছেন বলে অ্যারন ইন্টারনেট সেবাদাতা পরিবর্তন করতে চাচ্ছিলেন না। কারণ, এতে তাঁকে ফোন নম্বর, ই–মেইল পরিবর্তন করতে হতো। এ কারণেই ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে তিনি দুটি বিজ্ঞাপন দেন। বিজ্ঞাপনে তিনি এটিঅ্যান্ডটির প্রধান নির্বাহী জন টি স্ট্যানকির কাছে খোলা চিঠি লেখেন। তিনি বলেন, তাঁর বাড়ির আশপাশে ইউনিভার্সাল, ওয়ার্নার ব্রাদার্স, ডিজনি স্টুডিওসের অনেক কারিগরি কর্মকর্তা থাকেন। তাই ওই এলাকায় ইন্টারনেট হালনাগাদ করা সম্ভব। তিনি আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির সঙ্গে হালনাগাদ থাকতে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সুবিধা দেওয়ার আহ্বান জানান।

৩ ফেব্রুয়ারি ওই বিজ্ঞাপন প্রচার করা হয়। এর ফলাফল হাতেনাতেই পান অ্যারন।
এটিঅ্যান্ডটির প্রধান নির্বাহী তাঁকে ফোন করেন। তিনি ওই সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন। দ্রুত ওই এলাকায় দুজন কারিগরি কর্মকর্তা যান এবং সবকিছু ঠিকঠাক করে দেন।

অর্থ খরচ করে বিজ্ঞাপন দেওয়া প্রসঙ্গে অ্যারন বলেন, ‘আমার কাছে ১০ হাজার ডলার অনেক টাকা। কিন্তু এ ক্ষেত্রে ওই অর্থ ভালোভাবে কাজে লেগেছে।’

অ্যারন আরও বলেন, ‘করোনার সময় মানুষ বাইরে দামি রেস্তোরাঁয় যাচ্ছে না। কোথাও ছুটি কাটাতে যাচ্ছে না। আমি ও আমার স্ত্রী বাড়িতে বসে নেটফ্লিক্স ও অন্যান্য স্ট্রিমিং সেবা দেখছি। তাই এ ক্ষেত্রে অর্থ খরচের ব্যাপারে কোনো অভিযোগ নেই।’

এটিঅ্যান্ডটির একজন মুখপাত্র ঘটনাটি নিশ্চিত করে বলেছেন, অ্যারনের বাড়ির দিকে দ্রুতগতির ফাইবার ইন্টারনেট দেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন