default-image

উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র পরস্পর বৈরী পক্ষ হিসেবেই পরিচিত। এক পক্ষ অন্য পক্ষকে যেকোনো ছুতোয় এক হাত নিতে কখনো ভোলে না। এমনকি শান্তি আলোচনা চলমান থাকলেও এর ব্যতিক্রম তেমন দেখা যায় না। কিন্তু এমনই ব্যতিক্রম ঘটনা দেখা গেল আজ রোববার।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও উত্তর কোরিয়ার হয়ে সাফাই গাইলেন। উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার সীমান্তে গতকাল শনিবার হওয়া গোলাগুলির ঘটনা নিয়ে এই সংকটকালেও নতুন করে উত্তেজনা সৃষ্টির আশঙ্কা দেখা দিয়েছিল। এরই মধ্যে তাতে জল ঢেলে দিলেন পম্পেও। তিনি সীমান্তের এই গোলাগুলির ঘটনাকে 'দুর্ঘটনা' বলে মন্তব্য করেছেন।
বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গতকাল শনিবার দুই কোরিয়ার মধ্যবর্তী এক প্রত্যন্ত চেক পোস্টের কাছে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। দীর্ঘ দিন পর উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের দেখা মিলবার সঙ্গে এই ঘটনাকে মিলিয়ে উত্তেজনা তৈরি হচ্ছিল। উত্তর কোরিয়ার দিক থেকে হওয়া গুলির প্রত্যুত্তর দক্ষিণ কোরিয়াও গুলি দিয়েই দেয়। অবশ্য কোনো পক্ষেই কেউ মারা পড়েনি। এ অবস্থায় দক্ষিণ কোরিয়ার মিত্র যুক্তরাষ্ট্র কীভাবে সাড়া দেয়, তা নিয়েই শঙ্কা কাজ করছিল। কিন্তু মাইক পম্পেওর বক্তব্য এ ক্ষেত্রে স্বস্তি ও বিস্ময় দুই–ই জন্ম দিল।
এ বিষয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম এবিসির অনুষ্ঠান এবিসি দিজ উইকে মাইক পম্পেও বলেছেন, 'এগুলো দুর্ঘটনাবশত হয়েছে বলে আমরা মনে করি। দক্ষিণ কোরিয়াও প্রত্যুত্তরে গুলি করেছে। এখন পর্যন্ত আমাদের জানামতে উভয় পক্ষের কারওই প্রাণ যায়নি।'
মাঝের কিছু দিন কিম জং উনের উধাও হয়ে যাওয়া নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি মাইক পম্পেও।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0