default-image

দেখতে ছোট্ট একটি ফোল্ডিং চেয়ার, আদতে এটি একটি ব্যাগ। এ নিয়ে টুইটারে বেশ হাস্যরস চলছে। এর দাম ৮৯৬ মার্কিন ডলার। ক্রিস্টালে সজ্জিত পেভ চেয়ার ব্যাগটি তৈরি করেছে এরিয়া ব্র্যান্ড। লেক্সি ব্রাউন নামের এক ব্যক্তি টুইটারে এ নিয়ে টুইট করার পর বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ আলোচনার জন্ম দেয়।


লেক্সি ব্রাউন টুইটারে ব্যাগের ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আমার শখ নর্ডস্টর্মে বিক্রির জন্য হাস্যকর জিনিসপত্র খুঁজে বেড়ানো। এটা এখন পর্যন্ত আমার সেরা সন্ধান।’

নিজেদের পণ্য সম্পর্কে ব্র্যান্ডটির বক্তব্য হলো, কিছু বহন করার জন্য ব্যাগটি মোটেও উপযুক্ত নয়। ‘নিউইয়র্কে ফ্যাশন উইকে ব্যাগটি প্রদর্শিত হয়। আশ্চর্যের বিষয় হলো, এ নিয়ে কথা বলা ছাড়া আর কিছুই করার নেই, এতে কিছু বহন করা যায় না।’—এটি বলার পর ব্র্যান্ডটি যেই ই-কমার্স ওয়েবসাইট থেকে ব্যাগটি কেনা যাবে, সেখানে এ সম্পর্কে বিস্তারিত পড়তে বলে।

ব্রাউন তাঁর টুইটে দুজন ক্রেতা যাঁরা আগে এই ব্যাগ কিনেছেন, তাঁদের পর্যালোচনা সংযুক্ত করেছেন। একজন ক্রেতা ব্যাগটি কিনে বেশ তুষ্ট। তিনি প্রশংসা করে বলেছেন, ‘এটি মূর্খতা ও ব্যবহারিকতার অত্যাশ্চর্য এক প্রদর্শনী।’ আরেকজন সরস মন্তব্য করেছেন। তিনি তাঁর বিবাহবিচ্ছেদ উপলক্ষে আয়োজিত পার্টির বিলিপত্রের সঙ্গে বিলানোর জন্য একগাদা ব্যাগ কেনেন। আর দাম পরিশোধ করেন সাবেক হতে যাওয়া স্বামীর কার্ড থেকে।

বিজ্ঞাপন

চেয়ার ব্যাগটিতে চেইন ও ক্রিস্টাল ক্রসবডি স্ট্র্যাপ ছিল, যা পরে সরিয়ে নেওয়া হয়।
টুইটারে এই ব্যাগের ছবি পোস্ট করার পর ভাইরালে পরিণত হয়। ১ লাখ ৮০ হাজার মানুষ এতে লাইক দিয়েছে, আর শতাধিক মানুষ মজার মন্তব্য করেছে। একজন মন্তব্য করেছেন, ‘বাস্তবতা থেকে বিচ্ছিন্ন এই বস্তুর কেনার সামর্থ্য যদি আমার থাকত।’ আরেকজন লিখেছেন, ‘শেষ পর্যন্ত চোরের হাত থেকে আমার মাথার খুলিকে নিরাপদ রাখার পথ খুঁজে পেলাম।’

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন