default-image

যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি থেকে শুরু করে প্রধান প্রধান নগরীতে স্থানীয় সময় সোমবার রাত থেকেই পুলিশি টহল শুরু হয়েছে। নিরাপত্তার জন্য হোয়াইট হাউসের চারপাশে কাঁটাতারের বেষ্টনী ও কংক্রিটের ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছে।

মার্কিনদের আশঙ্কা, ফলাফল যা–ই হোক, নির্বাচনী সহিংসতা ছড়িয়ে পড়তে পারে।

রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পও জানিয়েছেন তাঁর সেই আশঙ্কার কথা।

তিনি বলেছেন, ডেমোক্রেটিক পার্টির লোকজন লুটতরাজ করার জন্য মুখিয়ে আছে।

বিজ্ঞাপন

শেষ মুহূর্তের নির্বাচনী প্রচারে জনমত জরিপে এগিয়ে থাকা ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন দেশকে ঐক্যবদ্ধ করবেন বলে জানিয়েছেন। তিনি মার্কিনদের নতুন দিনের আহ্বান জানিয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁকে পুনর্নির্বাচিত করে দেশকে রক্ষা করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

প্রায় প্রতিটি নগরীতে বিক্ষোভকারীরা প্রস্তুত। বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে ন্যাশনাল গার্ডকে প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে।

এবারই প্রথমবারের মতো আমেরিকার মোট ভোটারদের বেশির ভাগই আগাম ভোট দিয়েছেন। প্রায় সাড়ে নয় কোটি ভোটার আগাম ভোট দিয়েছেন। বাকি ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

শেষ দিনেও ট্রাম্প সংবাদমাধ্যম ও স্বাস্থ্যসেবীদের আক্রমণ করেছেন। তিনি বলেছেন, ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জয়ী হলে দেশ বন্ধ করে দেবেন। কোনো স্কুল থাকবে না। মার্কিনদের জন্য উৎসব থাকবে না। নৈরাজ্যবাদীদের হাতে চলে যাবে আমেরিকা।

জো বাইডেন এলোমেলো বক্তব্য না দিয়ে পাণ্ডুলিপি থেকে বক্তব্য দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, নির্বাচিত হলে ডেমোক্র্যাট বা রিপাবলিকান নয়, দেশের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

মঙ্গলবার ভোট গ্রহণের দিনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন পেনসিলভানিয়ায় দুই দফায় উপস্থিত থাকবেন বলে প্রচারণা শিবির থেকে জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0