বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওয়াশিংটন পোস্টের এক সাংবাদিক এমন একটি ভিডিও প্রথম টুইটারে শেয়ার করেন। তাতে দেখা যাচ্ছে, প্রথম দিকে বক্তার কথা শুনছিলেন বাইডেন। কিন্তু এর কয়েক সেকেন্ডের মাথায় চেয়ারে বসা অবস্থায় চোখ বন্ধ করে ফেলেন তিনি। বক্তা কথা বলছেন, আর ওই সময়টাতে ঘুমাতে দেখা যায় মার্কিন প্রেসিডেন্টকে।

প্রেসিডেন্টের ঘুমানোর এ দৃশ্য অন্যরা দেখে ফেলছেন, এমনটা ভেবে এর কয়েক সেকেন্ড পর বাইডেনের একজন উপদেষ্টা তাঁর কাছে যান। তিনি পাশে যাওয়ার পর ঘুম ভাঙে বাইডেনের। তিনি আবার চোখ খুলে বক্তার কথা শুনতে শুরু করেন। ওই বক্তার কথা শেষ হলে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে হাততালি দিতে দেখা যায়।

বেশ কিছু গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী ওই দিন উদ্বোধনী বক্তৃতা শুরু হওয়ার এক ঘণ্টার মাথায় এ ঘটনা ঘটে। ৭৮ বছর বয়সী বাইডেন রেকর্ড করা দক্ষিণ আফ্রিকার প্রতিবন্ধী অধিকারকর্মী এডডিয়ে এনডোপুর বক্তব্য শুনছিলেন। তখন ২০ সেকেন্ড তাঁর চোখ বন্ধ ছিল। এ নিয়ে ইন্টারনেটে ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে।

মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টের রিপোর্টার জ্যাক পার্সার ব্রাউন টুইটারে ভিডিও ফুটেজ শেয়ার করে লিখেছেন, ‘কপ-২৬ সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তৃতা শুরু না হতেই বাইডেনকে ঘুমিয়ে পড়তে দেখা যাচ্ছে।’ অনলাইনের শেয়ার হওয়ার পর এক দিনের মাথায় তাঁর ওই ভিডিও ফুটেজটি ৪৫ লাখের বেশি বার দেখা হয়েছে।

জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বয়োজ্যেষ্ঠ প্রেসিডেন্ট। এ মাসেই ৭৯-তে পা দেবেন তিনি। বয়সের কারণে বাইডেন শারীরিক ও মানসিকভাবে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালনে অযোগ্য বলে সমালোচকদের অভিযোগ। ২০২০ সালের নির্বাচনের সময় সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট তাঁকে ‘ঘুমকাতুরে জো’ বলে কটাক্ষ করেন।

জলবায়ু সম্মেলনে বাইডেনের ঘুমানোর ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর তাঁকে কটাক্ষ করার সুযোগ হাতছাড়া করেননি ট্রাম্প। নিউইয়র্ক পোস্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী ট্রাম্প বলেছেন, ‘বৈশ্বিক উষ্ণায়নকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেওয়ার কথা জানিয়ে বাইডেন ইউরোপে গেছেন। কিন্তু সেখানে তাঁর ঘুমানোর দৃশ্য দেখল গোটা বিশ্ব।’

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন