জিকা ভাইরাসের ব্যাপারে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ নিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন বিজ্ঞানীরা। তাঁরা বলছেন, এই ভাইরাস বিশ্বজুড়ে বিস্ফোরক দ্রব্যের মতো ছড়িয়ে পড়তে পারে।

আজ বৃহস্পতিবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের একটি চিকিৎসা সাময়িকীতে মার্কিন বিজ্ঞানীরা ডব্লিউএইচওকে ইবোলার প্রাদুর্ভাব থেকে শিক্ষা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। একই সঙ্গে জিকা ভাইরাসের ব্যাপারে রোগ-বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে একটি জরুরি কমিটি গঠন করারও পরামর্শ দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, পরীক্ষার জন্য জিকা ভাইরাসের টিকা পেতে দুই বছর লাগতে পারে। তা ব্যবহারের জন্য পেতে এক দশক লেগে যেতে পারে।

মশাবাহিত জিকা ভাইরাসের কারণে নবজাতক শিশুর মধ্যে গুরুতর জন্মগত ত্রুটি হচ্ছে বলে চিকিৎসকদের আশঙ্কা।

জিকা ভাইরাসকে কেন্দ্র করে ব্রাজিলে গুরুতর উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে। প্রায় ২০টি দেশে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে।

জিকা ভাইরাস মোকাবিলায় লাতিন আমেরিকাকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট দিলমা রুসেফ।

আমেরিকান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সাময়িকীতে বিজ্ঞানী ড্যানিয়েল আর লুসি এবং লরেন্স ও গোস্টিন বলেন, সাম্প্রতিক ইবোলা সংকটের সময় দ্রুত পদক্ষেপ নিতে ডব্লিউএইচওর ব্যর্থতার কারণে সম্ভবত হাজারো মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। জিকা ভাইরাস মোকাবিলায় দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া না হলে একই ধরনের বিপর্যয় দেখা দিতে পারে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0