বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ নিয়ে তদন্তের পর সত্যতা না পেয়ে ভিডিওগুলো সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে টিকটক।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কিছু স্কুলে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এমনিতেই স্কুলগুলো সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। এর মধ্যে টিকটকে হামলা নিয়ে তথ্য প্রচারের পর স্কুল কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীর বাবা-মায়েদের সতর্ক করে এবং নিরাপত্তা আরও জোরদার করেছে। এ ছাড়া বেশ কিছু এলাকায় ওই দিনের জন্য স্কুলে পাঠদানও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি টুইটে বলেন, হোয়াইট হাউস ও ফেডারেল আইন প্রয়োগকারীরা সংস্থাগুলো স্কুলে সহিংস হামলা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত হুমকিগুলো নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।

টিকটক বলছে, স্কুলে সম্ভাব্য হামলার আলোচিত ভিডিওগুলো নিয়ে তদন্ত করতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সঙ্গে কাজ করছে তারা। তবে এসব হুমকির সত্যতা পাওয়া যায়নি।

চীনা এই কোম্পানি বলেছে, ‘স্থানীয় কর্তৃপক্ষ, মার্কিন কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (এফবিআই) ও হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ নিশ্চিত করেছে, হামলার হুমকি নিয়ে যে তথ্য প্রচার করা হয়েছে, তার কোনো সত্যতা নেই। এ কারণে আমরা এ ধরনের পোস্ট ও ভিডিও সরিয়ে নিচ্ছি। এ ধরনের তথ্য আমাদের নীতি লঙ্ঘন করেছে।’

টিকটক আরও বলেছে, ‘আমাদের প্ল্যাটফর্মে সহিংসতা উসকে দেওয়ার মতো কিছু পেলে তা মুছে ফেলা হবে এবং আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে জানানো হবে।’

এফবিআই জানিয়েছে, স্কুলগুলোয় সম্ভাব্য হামলার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ টুইট করেছে, স্কুলগুলোয় হামলার হুমকি নিয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য তারা পায়নি।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন