হোয়াইট হাউসের বারান্দায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প
হোয়াইট হাউসের বারান্দায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পছবি: এএফপি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আর অন্যদের মধ্যে করোনাভাইরাস ছড়ানোর ঝুঁকি নেই। হোয়াইট হাউসের চিকিৎসক এমনটাই জানিয়েছেন। আজ রোববার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

হোয়াইট হাউসের চিকিৎসক সেইন কনলির এক লিখিত নোট থেকে ট্রাম্পের স্বাস্থ্যগত অবস্থা সম্পর্কে এ তথ্য জানা গেছে।

গত বৃহস্পতিবারের পর এই প্রথম ট্রাম্পের স্বাস্থ্যগত অবস্থা সম্পর্কে চিকিৎসকের কাছ থেকে হালনাগাদ তথ্য জানা গেল।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার হোয়াইট হাউসের বারান্দায় এসে উৎফুল্ল সমর্থকদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন ট্রাম্প। করোনা সংক্রমিত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ও হাসপাতাল থেকে হোয়াইট হাউসে ফেরার পর এই প্রথম ট্রাম্প জনসমক্ষে হাজির হলেন।

করোনা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তির তিন দিন পর গত সোমবার সন্ধ্যায় ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে ফিরে আসেন। একই সঙ্গে তিনি শিগগির নির্বাচনী প্রচারে নামার ঘোষণা দেন।

ট্রাম্পের এত দ্রুত হাসপাতাল থেকে হোয়াইট হাউসে ফেরা নিয়ে সমালোচনা আছে। তিনি অন্যদের মধ্যে করোনা ছড়াতে পারেন বলেও উদ্বেগ তৈরি হয়।

হোয়াইট হাউসের চিকিৎসকের নোটে বলা হয়, ট্রাম্পের সবশেষ পরীক্ষাগুলোতে সক্রিয়ভাবে ভাইরাস প্রতিরূপের কোনো প্রমাণ মেলেনি। তাঁর মধ্যে ভাইরাসের মাত্রা হ্রাস পাচ্ছে।

তবে ট্রাম্প করোনা ‘নেগেটিভ’ হয়েছেন কি না, তা হোয়াইট হাউসের চিকিৎসকের মেমোতে উল্লেখ করা হয়নি।

হোয়াইট হাউসের চিকিৎসক সেইন কনলি নোটে উল্লেখ করেছেন, ট্রাম্পের অত্যন্ত সূক্ষ্ম ল্যাব পরীক্ষা হয়েছে। তাঁর মধ্যে এখন কতটুকু ভাইরাস আছে, তা শনাক্ত হয়েছে।

সেইন কনলি বলেন, অন্যকে সংক্রমিত করার ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে ট্রাম্পকে আর বিবেচনা করা হয় না।

শনিবার হোয়াইট হাউসের বারান্দায় এসে সমর্থকদের উদ্দেশে ট্রাম্পের ভাষণের পর কনলির দেওয়া হালনাগাদ তথ্য সামনে এল। ওই ভাষণে ট্রাম্প বলেন, তিনি খুব ভালো বোধ করছেন।

ট্রাম্প আরও জানান, তিনি করোনার জন্য এখন আর কোনো ওষুধ গ্রহণ করছেন না।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0