default-image

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করতে ডেমোক্রেটিক পার্টি যে চেষ্টা চালাচ্ছে, তা বড় ধাক্কা খেল গতকাল মঙ্গলবার। কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যে অভিশংসন প্রস্তাব পাস হয়েছে, সেই অভিশংসন বিচারের মামলাটি আমলে না নেওয়ার পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন অধিকাংশ রিপাবলিকান সিনেটর।

অভিশংসন প্রস্তাবের এই শুনানির শুরুতেই তা নাকচ করে দিতে অধিকাংশ রিপাবলিকান সিনেটররা এককাট্টা হয়েছেন। এর মধ্যে রিপাবলিকান দলের ওপর ট্রাম্পের নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি আবারও সামনে এল।

৬ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবন ক্যাপিটলে হামলা চালান ট্রাম্পের সমর্থকেরা। এ হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রস্তাব আনা হয়। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, ট্রাম্প এই হামলায় উসকানি দিয়েছেন। পরে ১৩ জানুয়ারি প্রতিনিধি পরিষদে প্রস্তাবটি পাস হয়। এর মধ্য দিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো অভিশংসিত হন ট্রাম্প, যা যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম। এই হামলার পর থেকে রিপাবলিকান পার্টির অনেক নেতাই ট্রাম্পের সমালোচনা করেছেন। তবে সিনেটের ভোটে তার কোনো প্রতিফলন লক্ষ করা যায়নি।

সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার হবে কি না, তা নিয়ে মঙ্গলবার সিনেটে একটি ভোট অনুষ্ঠিত হয়। প্রস্তাবটি গ্রহণের পক্ষে ৫০ জন ডেমোক্র্যাট সিনেটর ও রিপাবলিকানদের ৫ জন সিনেটর ভোট দেন। আর বিপক্ষে ভোট পড়ে ৪৫টি।

বিজ্ঞাপন
default-image

এই ভোটের মধ্য দিয়ে ডেমোক্র্যাটদের নতুন বার্তা দিল রিপাবলিকান পার্টি। ভোটের ফলাফল বলে দিচ্ছে, এই অভিশংসন বিচারে ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করতে হলে রিপাবলিকান পার্টির ১৭ জন সিনেটরের সমর্থন লাগবে। কারণ, ডেমোক্র্যাটদের পক্ষে রায় নিতে হলে দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে হবে। বিশ্লেষকেরা বলছেন, এই সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া কঠিন হবে ডেমোক্র্যাটদের জন্য।

ট্রাম্পের ক্ষমতামল শেষ হয়েছে। এরপর তাঁর বিচারের ক্ষেত্রে সাংবিধানিক ভিত্তি রয়েছে কি না, তা নিয়ে মঙ্গলবার সিনেটে প্রশ্ন তোলেন কেনটাকির রিপাবলিকান সিনেটর র‍্যান্ড পল। তিনি বলেন, এই প্রস্তাবের মাধ্যমে ৪৫ সিনেটর দেখিয়ে দিয়েছেন, তাঁরা মনে করেন, এই ‘বিচার’ অসাংবিধানিক। এই প্রস্তাব এখন মৃত।

এদিকে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচারের সভাপতিত্ব করছেন সিনেটর প্যাট্রিক লেহি। তিনি ভারমন্ট থেকে নির্বাচিত ডেমোক্র্যাট সিনেটর। মঙ্গলবার ওই ভোটাভুটির পর ৮০ বছর বয়সী এই সিনেটরকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তাঁর মুখপাত্র জানিয়েছেন, লেহি হাসপাতালে রয়েছেন। তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন