বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

হলরুমে বসে থাকা অনেককে মন্তব্য করতে শোনা যায়, ত্যাগী নেতা-কর্মীদের যথাযথ মূল্যায়ন না করলে বা কমিটিতে রাখা না হলে এই আহ্বায়ক কমিটি তাঁরা মানবেন না। আর যাদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে, তাঁরা বিজয় চিহ্ন দেখিয়ে সাংবাদিকদের সামনে নিজেদের আনন্দের প্রকাশ ঘটান।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত একজন নেতা বলেন, কোনো কমিটি না থাকার চেয়ে সুবর্ণ জয়ন্তী কমিটিও মন্দ নয়। তিনি আরও মন্তব্য করেন নাই মামার চেয়ে কানা মামা অনেক ভালো।

এদিকে সুবর্ণজয়ন্তী কমিটি গঠনের আগে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির দুই প্রতিষ্ঠাতা ডা. মুজিবুর রহমান মজুমদার ও আবদুল লতিফ বর্তমান কমিটিতে তাদের কোনো দায়িত্ব না দিয়ে নতুনদের সুযোগ করে দিতে কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে অনুরোধ জানান। বিষয়টিকে নিয়ে বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা আবদুস সালাম বলেন, তাঁরা দুজন উদারতার পরিচয় দিয়েছেন, যা সব সময় স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পাওয়া জিল্লুর রহমান প্রথম আলোকে দেওয়া এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, দেশের চলমান গভীর সংকটের সময় দেশে–বিদেশে জাতীয়তাবাদী শক্তি এখন অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি ঐক্যবদ্ধ। তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও দলের প্রধান বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনা করে তাঁর কারামুক্তির দাবি জানিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন