বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এক বিবৃতিতে কারিনের অভিজ্ঞতা, প্রতিভা ও সততার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন বাইডেন। বলেছেন, হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি হিসেবে কারিনের নাম ঘোষণা করতে পেরে তিনি গর্ব বোধ করছেন।

বিদায়ী প্রেস সেক্রেটারি সাকিও এই নিয়োগ নিয়ে টুইট করেছেন। হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি হিসেবে কারিনের নিয়োগের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন তিনি।

টুইটে সাকি লিখেছেন, কারিন হবেন হোয়াইট হাউস প্রেস সেক্রেটারি হিসেবে দায়িত্ব নিতে যাওয়া প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ নারী ও প্রথম প্রকাশ্য এলজিবিটিকিউ প্লাস ব্যক্তি।

প্রতিনিধিত্বের ওপর অনেক কিছু নির্ভর করে। তিনি অনেকের কণ্ঠস্বর হবেন।

৪৪ বছর বয়সী কারিন ২০০৮ ও ২০১২ সালে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়েছিলেন।

হোয়াইট হাউসে বর্তমান পদে যোগ দেওয়ার আগে ২০২০ সালে বাইডেনের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়েছিলেন কারিন।

বাইডেন যখন ওবামা প্রশাসনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন, তখনো তাঁর অধীন কারিন কাজ করেছেন।

কারিনের জন্ম ফ্রান্সের সামুদ্রিক দ্বীপ মার্তিনিকে। তবে তিনি বেড়ে উঠেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে। ফরাসিভাষী কারিনের মা-বাবা হাইতিয়ান। তাঁরা একপর্যায়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান।

কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক করেছেন কারিন। তাঁর সঙ্গী সিএনএনের সাংবাদিক। তাঁদের একটি কন্যাসন্তান আছে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন