বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রতিবেদন বলা হয়, প্যাট্রিসিয়া কর্নওয়েল (৫১) নামের ওই নারী বাথরুমে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে নিজের আসনে ফেরার সময় আসনের সামনের স্থানে এক বাক্স পানীয়র বোতল দেখতে পান। এতে রাস্তা আটকে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ হন প্যাট্রিসিয়া কর্নওয়েল। এ সময় ফ্লাইটের এক ক্রু জায়গা খালি না হওয়া পর্যন্ত তাঁকে একটি ফাঁকা আসনে বসতে অনুরোধ করেন।এতে কর্নওয়েল ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন, ‘আমি কে, রোজা পার্কস?’ আফ্রিকান-আমেরিকান রোজা পার্কস যুক্তরাষ্ট্রে মানবাধিকার আন্দোলনের অনুকরণীয় ব্যক্তিত্ব। ১৯৫৫ সালে এক বাসযাত্রায় এক শ্বেতাঙ্গ ব্যক্তি তাঁকে আসন ছাড়তে বললে তিনি তাতে অস্বীকৃতি জানান।

এরপর প্যাট্রিসিয়া কর্নওয়েল তাঁর পাশের আসনের ওই পুরুষ যাত্রীর সঙ্গে বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। বয়সে প্রবীণ ওই যাত্রী কর্নওয়েলকে বলেন, ‘তুমি কৃষ্ণাঙ্গ নও, এটা আলাবামাও নয়। আর এটি কোনো বাসও না।’ তাঁর এ মন্তব্যে দুজনের মধ্যে ঝগড়া বেঁধে যায়। শেষ পর্যন্ত ওই ব্যক্তির দিকে তেড়ে এসে তাঁকে ঘুষি মারেন প্যাট্রিসিয়া কর্নওয়েল। পুরো ঘটনাটি ভিডিও করেন পাশের আসনের এক যাত্রী।

ভিডিওতে দেখা যায়, কর্নওয়েল ওই ব্যক্তিকে মাস্ক পরতে বলছেন। যদিও এ সময় তাঁর নিজের মাস্ক থুতনির নিচে নামানো ছিল। এ সময় ওই ব্যক্তিও চিৎকার করে কর্নওয়েলকে মাস্ক পরতে বলেন। তর্কাতর্কির একপর্যায়ে বিমানের দুই ক্রু কর্নওয়েলকে থামাতে গেলেও তিনি ওই ব্যক্তিকে ঘুষি মারেন। এরপরও দুজনের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় চলে। একপর্যায়ে দুই ক্রু কর্নওয়েলকে টেনে নিয়ে যান।

বিমানটি আটলান্টায় অবতরণের পরে প্যাট্রিসিয়া কর্নওয়েলকে এফবিআই হেফাজতে নেওয়া হয় বলে যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়।

এক বিবৃতিতে পুলিশ বলেছে, প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত ও ভিডিও ফুটেজে থাকা প্রমাণ সাপেক্ষে কর্মকর্তারা কর্নওয়েলকে আটক করে এফবিআই এজেন্টকে ডাকেন। এরপর কর্নওয়েলকে আটলান্টার স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে নিয়ে গিয়ে তাঁকে এফবিআই এজেন্টের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

মারধর ও আহত করার অভিযোগে প্যাট্রিসিয়া কর্নওয়েলকে গত সোমবার আটলান্টার ফেডারেল কোর্টে হাজির করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন