default-image

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে গুলির ঘটনা ঘটেছে। গুলিতে একজন নিহত হয়েছেন। আহত অন্তত ছয়জন। তাঁদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর। বার্তা সংস্থা এএফপি ও রয়টার্সের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা আড়াইটার দিকে টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের ব্রায়ান শহরে এই গুলির ঘটনা ঘটে। গতকালই দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আগ্নেয়াস্ত্র সহিংসতাকে মহামারির সঙ্গে তুলনা করে তা নিয়ন্ত্রণে একাধিক নির্বাহী আদেশ জারি করেন। তার কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে দেশটিতে ফের আগ্নেয়াস্ত্র সহিংসতায় হতাহতের ঘটনা ঘটল।

পুলিশ জানায়, শহরের একটি শিল্প পার্কে অবস্থিত কেন্ট মুর ক্যাবিনেটস নামের কারখানায় এক বন্দুকধারী এলোপাতাড়ি গুলি চালান। গুলিতে ঘটনাস্থলেই একজন নিহত ও চারজন আহত হন। এই চারজনের অবস্থা গুরুতর। এ ছাড়া এই ঘটনায় আরও দুজন আহত হয়েছেন।

সন্দেহভাজন বন্দুকধারীকে আটক করে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। তাঁর নাম-পরিচয় জানানো হয়নি। তবে পুলিশ বলেছে, সন্দেহভাজন বন্দুকধারী ওই কারখানাটিতেই কাজ করতেন।

গুলির এই ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে কী কারণে এই গুলির ঘটনা ঘটল, সে সম্পর্কে তদন্তকারীরা এখনো কিছু জানতে পারেননি।

বিজ্ঞাপন

হামলার বিষয়ে বিস্তারিত বিবরণ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে পাওয়া যায়নি। পুলিশ জানায়, তারা বেলা প্রায় আড়াইটার দিকে হামলার বিষয়ে ফোন কল পায়। তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহত ব্যক্তিদের পড়ে থাকতে দেখে।

বন্দুকধারী গুলি করে পালিয়ে গিয়েছিলেন। পরে তাঁকে ধরতে সক্ষম হয় পুলিশ। এই সহিংসতায় সন্দেহভাজন হামলাকারী ‘হ্যান্ডগান’ ব্যবহার করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে পুলিশ।

ব্রায়ান শহরটি টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের মাঝামাঝি এলাকায় অবস্থিত। এই অঙ্গরাজ্যেরই অ্যালেন শহরে গত সপ্তাহান্তে আগ্নেয়াস্ত্র সহিংসতায় ছয়জন নিহত হন। শহরটিতে বসবাসরত বাংলাদেশি একটি পরিবারের দুই সহোদর আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে বাবা, মা, বোন ও নানিকে হত্যার পর নিজেরা আত্মহত্যা করেন। সেই মর্মান্তিক ঘটনার রেশ কাটানোর আগেই অঙ্গরাজ্যে আরেকটি আগ্নেয়াস্ত্র সহিংসতার ঘটনা ঘটল।

টেক্সাসের আগে সম্প্রতি আটলান্টা, কলোরাডো, জর্জিয়া, সাউথ ক্যারোলাইনা, ক্যালিফোর্নিয়ায় আগ্নেয়াস্ত্র সহিংসতার ঘটনা ঘটে। যুক্তরাষ্ট্র বছরে প্রায় ৪০ হাজার মানুষ আগ্নেয়াস্ত্রসংক্রান্ত নানা সহিংসতার প্রাণ হারাচ্ছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আমেরিকায় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণে বৃহস্পতিবার একাধিক নির্বাহী আদেশ জারি করেন। হোয়াইট হাউসের রোজ গার্ডেনে বসে এ-সংক্রান্ত ঘোষণার সময় বাইডেন আমেরিকার আগ্নেয়াস্ত্র সহিংসতাকে মহামারির সঙ্গে তুলনা করেন। একই সঙ্গে তিনি বলেন, বিষয়টি আমেরিকার জন্য আন্তর্জাতিকভাবে বিব্রতকর হয়ে উঠেছে।

মার্কিন সংবিধানের দ্বিতীয় সংশোধনীতে নাগরিকদের আগ্নেয়াস্ত্র রাখার অধিকার নিশ্চিত করা আছে। এই অধিকার নিয়ে মার্কিন সমাজ ব্যাপকভাবে বিভক্ত। বিশেষ করে দেশটির রক্ষণশীলরা এই সাংবিধানিক অধিকারে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপের ঘোর বিরোধী। আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে বাইডেনের অবস্থান দৃঢ়। তিনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে এই সহিংসতা বন্ধ করতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন