জলবায়ুর সংকটের কারণে বৈশ্বিক খাদ্য উৎপাদন এখন মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছে। এদিকে রাশিয়া–ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বিশ্বজুড়ে খাদ্যসংকট আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। জাতিসংঘ সতর্ক করে বলেছে, ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের কারণে আগামী মাসগুলোতে বিশ্বব্যাপী খাদ্যসংকট দেখা দিতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, এই যুদ্ধ দরিদ্র দেশগুলোর খাদ্য নিরাপত্তাহীনতাকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। খাদ্যপণ্যের ক্রমবর্ধমান দামের কারণে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, ইউক্রেনের রপ্তানি যদি যুদ্ধ-পূর্ব পর্যায়ে ফিরিয়ে নেওয়া না যায়, তাহলে বিশ্ব দুর্ভিক্ষের মুখোমুখি হতে পারে। এই দুর্ভিক্ষ বছরের পর বছর ধরে চলতে পারে।

খাদ্যসংকটের জন্য পশ্চিমাদের দায়ী করেছে রাশিয়া। তারা বলছে, মস্কোকে বিচ্ছিন্ন করার জন্য পশ্চিমাসহ জি-৭ জোটের দেশগুলোর প্রচেষ্টা বিশ্বব্যাপী খাদ্যসংকট আরও বাড়িয়েছে।

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রচারিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক সহযোগিতার দীর্ঘস্থায়ী চ্যানেল থেকে রাশিয়াকে অর্থনৈতিক, বাণিজ্যিক, লজিস্টিকগতভাবে প্রত্যাহারের প্রচেষ্টা শুধু অর্থনৈতিক ও খাদ্যসংকটকে বাড়িয়ে তুলছে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন