বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ছাড়া করোনাভাইরাসের টিকার বুস্টার ডোজ নেওয়া কেউ এখনো মারা যাননি বলেন জানিয়েছেন জিম।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরাও একই ধরনের কথা বলেছেন। তাঁরা বলছেন, কোভিড-১৯-এর টিকার পূর্ণ ডোজ যাঁরা নিয়েছেন এবং যাঁরা বুস্টার ডোজ নিয়েছেন, তাঁরা সবচেয়ে ভালো সুরক্ষা পাচ্ছেন।

যুক্তরাষ্ট্রে টিকাদান কর্মসূচিতে যে খুব অগ্রগতি হয়েছে, এমনটা নয়। যে দেশগুলো সবার আগে টিকা কর্মসূচি শুরু করেছে, তাদের অন্যতম যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির জনগণকে টিকা নিতে উৎসাহিত করা হয়েছে বিভিন্নভাবে। এমনকি টিকা গ্রহণে পুরস্কারও দেওয়া হয়েছে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে। এরপর এ পর্যন্ত ৬৪ শতাংশ মানুষ টিকার পূর্ণাঙ্গ ডোজ নিয়েছেন। এর মধ্যে যাঁরা টিকার বুস্টার ডোজ পাওয়ার যোগ্য, তাঁদের এক-তৃতীয়াংশ এই ডোজ নিয়েছেন।

সিএনএন বলছে, করোনায় আক্রান্তের ক্ষেত্রে নতুন একটি বিষয় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ওই হাসপাতালের নার্স কেটি সেফটন বলেন, যাঁরা আক্রান্ত হচ্ছেন, তাঁদের মধ্যে তরুণদের সংখ্যা বেশি।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন