default-image

এটি যুক্তরাষ্ট্রে সর্বশেষ বন্দুক হামলার ঘটনা। দেশটিতে ২০২২ সালের এই পর্যন্ত প্রত্যেক সপ্তাহে একটি করে বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, এ ধরনের সহিংসতায় তিনি ‘স্তম্ভিত’।

স্থানীয় সময় গতকাল সোমবারের এই গুলির ঘটনায় হামলাকারীকে ধরতে অভিযান শুরু হয়। একপর্যায়ে ক্রিমোকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয়। তবে গ্রেপ্তারের পর পুলিশ বলেছে, হামলার জন্য তিনিই দায়ী বলে তারা মনে করছে।

স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে কুচকাওয়াজ শুরুর কয়েক মিনিট পরই বন্দুকধারী গুলিবর্ষণ শুরু করেন। স্বাধীনতা দিবস উদ্‌যাপনের অংশ হিসেবে কুচকাওয়াজসহ নানান আয়োজন করেছিল শহর কর্তৃপক্ষ। হামলার পর সেগুলো বাতিল করা হয়।

হামলার ঘটনায় মুহূর্তের মধ্যে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠান পণ্ড হয়ে যায়। আতঙ্কিত লোকজন দিগ্‌বিদিক ছুটতে থাকে। গুলিতে ঘটনাস্থলেই পাঁচজনের মৃত্যু হয়। নিটকস্থ হাসপাতালে মারা যান আরও একজন। তিনি পেশায় ময়নাতদন্তকর্মী (শব পরীক্ষক)।

হামলার ঘটনার পর হাইল্যান্ড পার্ক শহরের মেয়র ন্যান্সি রোটেরিং বলেন, ‘এই দিনে আমরা স্বাধীনতা উদ্‌যাপনের জন্য একত্র হই। তবে আজ এই মর্মান্তিক প্রাণহানির জন্য আমাদের শোক পালন করতে হচ্ছে।’

এর আগে ২০২১ সালে শিকাগোতে বন্দুকধারীর হামলার ঘটনা ঘটে। ওই হামলায় ১০০ জনের বেশি মানুষ গুলিবিদ্ধ হন। তাঁদের মধ্যে মৃত্যু হয় ১৭ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রে একের পর এক বন্দুক হামলার ঘটনায় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণে কঠোর আইনের দাবিতে দেশজুড়ে আন্দোলন জোরদার হয়েছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে একটি আইন পাস করেছে কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেট। আইন অনুযায়ী, ২১ বছরের কম বয়সীদের কাছে অস্ত্র বিক্রির ক্ষেত্রে তাঁদের পারিবারিক ইতিহাস যাচাই করে নিতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন