default-image

যুক্তরাষ্ট্রের হোয়াইট হাউসের সামনে নিরাপত্তারক্ষীদের একটি তল্লাশিচৌকিতে বোমার হুমকি দিয়ে এক গাড়িচালক আটক হয়েছেন। কর্তৃপক্ষ বলেছে, গত শনিবার স্থানীয় সময় রাত ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
সিএনএন জানায়, প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিক্রেট সার্ভিস বাহিনী এ ঘটনার পর থেকে হোয়াইট হাউসের নিরাপত্তাব্যবস্থা আরও জোরদার করেছে। ঘটনার সময় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁর সরকারি বাসভবনে ছিলেন না। তিনি ছিলেন ফ্লোরিডায় নিজের রিসোর্টে।
সিক্রেট সার্ভিসের এক মুখপাত্র বলেন, এক ব্যক্তি গাড়ি নিয়ে হোয়াইট হাউস-সংলগ্ন সিক্রেট সার্ভিসের ওই তল্লাশিচৌকি এলাকায় ঢুকলে তাঁকে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সদস্যরা থামান। এ সময় তিনি তাঁর গাড়িতে বোমা রয়েছে বলে হুমকি দেন। সঙ্গে সঙ্গে লোকটিকে আটক করে তাঁর গাড়ি জব্দ করা হয়।
এ ঘটনার কয়েক ঘণ্টা আগেই হোয়াইট হাউসের বেষ্টনী অতিক্রম করার চেষ্টা করার সন্দেহে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে সিক্রেট সার্ভিস।
এর আগে ১০ মার্চ রাতে বেষ্টনী অতিক্রম করে হোয়াইট হাউস প্রাঙ্গণে ঢুকে পড়েন জোনাথন ট্র্যান (২৬) নামের এক যুবক। সিক্রেট সার্ভিসের সদস্যদের অলক্ষ্যে তিনি ১৬ মিনিটের বেশি সময় প্রাঙ্গণে ঘুরে বেড়ান। আটকের আগ মুহূর্তে তিনি মূল ভবনের কয়েক কদম দূরে অবস্থান করছিলেন। এ অপরাধে তাঁর সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।
১০ মার্চ রাতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প হোয়াইট হাউসেই ছিলেন। সিক্রেট সার্ভিস এক বিবৃতিতে এ ঘটনাকে ‘অত্যন্ত হতাশাজনক’ আখ্যা দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন