বাংলাদেশ

সিরাজগঞ্জ-ঢাকা ট্রেন চালু

.

ঢাকা-সিরাজগঞ্জ রেলপথে যাত্রা শুরু করেছে ‘সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস’। গতকাল সোমবার সকাল ছয়টায় সিরাজগঞ্জ বাজারস্টেশন থেকে ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। এর আগে গত রোববার বিকেলে ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশনে ট্রেনটির উদ্বোধন করা হয়।
সিরাজগঞ্জ থেকে ঢাকার সঙ্গে এই প্রথম ট্রেন চালু হলো। এর আগে ঈশ্বরদী থেকে সিরাজগঞ্জ শহর হয়ে ঢাকা অভিমুখে যাত্রা করত। এখন ট্রেনটি সিরাজগঞ্জ বাজারস্টেশন থেকে সকাল ছয়টা এবং ঢাকা থেকে বিকেল পাঁচটায় ছাড়বে।
সিরাজগঞ্জ বাজার রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা গেছে, সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেসে ১১টি বগিতে ৯৬৬টি আসন রয়েছে। এর মধ্যে শীতাতপনিয়ন্ত্রিত (কেবিন) প্রথম শ্রেণির ৭৮টি, স্নিগ্ধা ১০৫টি এবং সাধারণ চেয়ার ৭৮৩টি। গতকাল প্রথম দিনে ১৫টি কেবিন আসন, ১৩টি স্নিগ্ধা আসন ও ১০৪টি সাধারণ চেয়ারের টিকিট বিক্রি হয়।
প্রথম দিনের টিকিট বিক্রি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন স্টেশনমাস্টার শামীম আহমেদ। তিনি বলেন, ‘ট্রেনের সময়সূচি পরিবর্তন হয়েছে। ভবিষ্যতে যাত্রীসংখ্যা বৃদ্ধি পাবে আশা করি।’
ট্রেনের যাত্রী ফুলাদ হায়দার খান বলেন, পরিবর্তিত সময়ে ট্রেনটি চালু হওয়ায় চাকরিজীবী, ব্যবসায়ী, শিক্ষার্থী—সবারই সুবিধা হবে। যথাসময়ে ঢাকায় পৌঁছে তাঁরা কাজ শেষে রাতেই ফিরতে পারবেন। মানসম্পন্ন বগি ও আসন হওয়ায় যাত্রীরাও আরামদায়ক ভ্রমণ করতে পারবেন। তবে সাপ্তাহিক বন্ধের দিনটি শনিবারের পরিবর্তে মঙ্গলবার করলে আরও ভালো হতো। সিরাজগঞ্জ জেলা স্বার্থরক্ষা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক জহুরুল হক বলেন, ‘সিরাজগঞ্জ থেকে সরাসরি ট্রেন চলাচলের দাবি ছিল দীর্ঘদিনের। এটি বাস্তবায়িত হওয়ায় সিরাজগঞ্জবাসী আনন্দিত।’
স্থানীয় সাংসদ হাবিবে মিল্লাত বলেন, ‘এলাকাবাসীর দাবির প্রতি সম্মান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নতুন ট্রেন চালু করেছেন। আমরা এখন তাঁর কাছে দ্রুত একটি বাইপাস রেললাইনসহ বগুড়া-সিরাজগঞ্জ হয়ে ঢাকা আরেকটি রেললাইন নির্মাণের দাবি করছি।’