বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এমন পরিস্থিতিতে রোববার পালিত হচ্ছে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস। এবার দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘ডায়াবেটিস সেবা নিতে আর দেরি নয়’। দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতি সারা দেশে নানা কর্মসূচি পালন করবে।

ডায়াবেটিসের কারণে হৃদ্‌রোগ, মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ বা স্ট্রোক, কিডনি রোগ, চোখের রোগ, পঙ্গুত্ব ও মাড়ির রোগ হয় বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতি। জনস্বাস্থ্যবিদেরা বলছেন, মানুষের কায়িক পরিশ্রম কমে যাওয়া, জীবনযাত্রার ধরনের পরিবর্তনের কারণে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।

বাংলাদেশ জনমিতি ও স্বাস্থ্য জরিপ ২০১৭-১৮ অনুযায়ী, দেশে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষ ১ কোটি ১০ লাখ। ১৮-৩৪ বছর বয়সীদের মধ্যে এ সংখ্যা ২৬ লাখ। আর ৩৫ বছর ও তার চেয়ে বেশি বয়সীদের মধ্যে ৮৪ লাখ মানুষ এ রোগে আক্রান্ত।

ডায়াবেটিক সমিতি জানিয়েছে, বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশে প্রতি ১০০ নারীর মধ্যে ১০ জন গর্ভকালীন ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হন। যাঁদের ৬৫ শতাংশ পরবর্তী সময়ে টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে পড়েন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) এন্ডোক্রাইনোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শাহজাদা সেলিম বলেন, ‘দেশে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষের অর্ধেকই জানেন না তাঁদের ডায়াবেটিস হয়েছে। প্রথম সমস্যা হলো, এ না জানা। না জানতে পারলে তো প্রতিরোধ সম্ভব নয়।’ তিনি বলেন, কার কার রোগটি হচ্ছে, তা পরীক্ষা করতে হবে। পাশাপাশি সচেতনতায় দরকার কর্মসূচি।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন