বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মফিদুর রহমান বলেন, এয়ারলাইন্সগুলো আজ থেকেই যাত্রী নিতে পারবে। আর কোনো বাধা নেই। আমিরাতে যেতে হলে যাত্রীদের ফ্লাইটের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে একবার এবং ফ্লাইটের ছয় ঘণ্টা আগে বিমানবন্দরে আরেকবার করোনা পরীক্ষা করতে হবে।
এরপর এমিরেটস এয়ারলাইনস জানিয়েছে, আজ সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় ঢাকা থেকে ১০ জন যাত্রী নিয়ে তাদের একটি ফ্লাইট দুবাইয়ের উদ্দেশে যাত্রা করছে। এরপর রাত দেড়টার দিকে আরেকটি ফ্লাইট ছাড়ার কথা রয়েছে। ওই ফ্লাইটে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত ২০ জন যাত্রী টিকিট বুকিং নিশ্চিত করেছেন। বাকি সময়ের মধ্যে যাত্রী বেড়ে ৫০ জনের মতো হবে বলে তারা আশা করছে।

সংবাদ সম্মেলনে বেবিচক চেয়ারম্যান মফিদুর রহমান বলেন, শাহজালাল বিমানবন্দরে আরটি-পিসিআর পরীক্ষাগারে প্রতি ঘণ্টায় এক হাজারজনের নমুনা পরীক্ষা করানো যাবে। এই পরীক্ষার জন্য ১ হাজার ৬০০ টাকা করে নেওয়া হবে। বিমানবন্দরে পরীক্ষাগারটিতে ছয় প্রতিষ্ঠান একসঙ্গে কাজ করছে। তারা এখন একটি ইউনিট হিসেবে কাজ করবে। সবাই সমপরিমাণ যাত্রীর করোনা পরীক্ষা করার সুযোগ পাবে। এ বিষয়ে একটি তত্ত্বাবধায়ক কমিটি করা হয়েছে, তারা পুরো প্রক্রিয়া সমন্বয় করবে।

বেবিচক চেয়ারম্যান বলেন, ফ্লাইটের ছয় ঘণ্টা আগে বিমানবন্দরে র‌্যাপিড পিসিআর পদ্ধতিতে করোনা পরীক্ষার শর্ত দিয়েছিল আরব আমিরাত। র‌্যাপিড পিসিআর পদ্ধতির বদলে আরটি-পিসিআর পদ্ধতিতে যাত্রীদের নমুনা পরীক্ষার উদ্যোগ নেওয়া হয়। র‌্যাপিড পিসিআর পরীক্ষার এখন আর দরকার নেই, আমিরাত কর্তৃপক্ষের শর্তে এটি নেই। তারা আরটি-পিসিআর পরীক্ষার ফলই গ্রহণ করবে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতগামী ব্যক্তিদের ফ্লাইট শুরুর ছয় ঘণ্টা আগে বিমানবন্দরে আসতে হবে বলে জানান বেবিচক চেয়ারম্যান। তিনি বলেন, কিছু আনুষ্ঠানিকতা আছে, সে জন্য যাত্রীদের হাতে সময় নিয়ে আসতে হবে। ১০টি বুথে নমুনা নেওয়া হবে।

আজ দুপুরে এক চিঠিতে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনার আরটি-পিসিআর পরীক্ষা পদ্ধতির বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। ঢাকায় দেশটির দূতাবাস থেকে দেওয়া ওই চিঠিতে বাংলাদেশ থেকে আমিরাতে ফ্লাইট চলাচল শুরু করার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয় ১৫ সেপ্টেম্বর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার জন্য আরটি-পিসিআর পরীক্ষাগার বসাতে সাতটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে নির্বাচিত করে। এর মধ্যে ছয়টি প্রতিষ্ঠান স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) জমা দেয় ১৬ সেপ্টেম্বর। এসব এসওপি যাচাই করতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাঠানো হয়। এর সম্মতি আমিরাত কর্তৃপক্ষ আজ দিল।

গত আগস্টে আমিরাত সে দেশে যেতে যাত্রার ছয় ঘণ্টা আগে করোনার আরটি-পিসিআর পরীক্ষার শর্ত আরোপ করে। এ কারণে দীর্ঘদিন ধরে কর্মস্থলে ফিরতে পারছিলেন না প্রবাসীরা। বিমানবন্দরে করোনার পরীক্ষার ব্যবস্থার দাবিতে বিক্ষোভ ও অনশনের মতো কর্মসূচি পালন করেন তাঁরা।

৬ সেপ্টেম্বর মন্ত্রিসভার বৈঠকে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসহ দেশের তিনটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনা শনাক্তে আরটি-পিসিআর পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্দেশ দেওয়া হয়।

শাহজালাল বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা প্রস্তুত ও এ-সংক্রান্ত সম্মতি পাওয়া গেলেও চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও সিলেটের ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আরটি-পিসিআর যন্ত্র বসানো বা করোনা পরীক্ষা চালুর বিষয়ে এখনো কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন