বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জেলাপর্যায়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়ে সমন্বয় সভা করে সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ, র‍্যাব ও আনসার নিয়োগ এবং টহলের অধিক্ষেত্র, পদ্ধতি ও সময় নির্ধারণ করবেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আদেশে বলা হয়, পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে চলমান বিধিনিষেধ ১৪ জুলাই মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই সকাল ৬টা পর্যন্ত শিথিল থাকবে। ঈদের পর ২৩ জুলাই সকাল ছয়টা থেকে আগামী ৫ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত আবার কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ থাকবে।

ওই সময় এখনকার বিধিনিষেধের মতোই সরকারি-বেসরকারি অফিস, গণপরিবহনসহ সব যানবাহন বন্ধ থাকবে। বন্ধ থাকবে শপিং মল, মার্কেট, দোকানপাট। তখন সব ধরনের শিল্পকারখানাও বন্ধ থাকবে। চলমান বিধিনিষেধে শিল্পকারখানা খোলা রয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ১ জুলাই থেকে কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়, যা ১৪ জুলাই মধ্যরাতে শেষ হবে। এই বিধিনিষেধ কার্যকরে সেনাবাহিনী মোতায়েন রয়েছে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন