বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

উদ্ধার করা প্রতিটি সোনার বারের ওজন ১১৬ গ্রাম। এ হিসেবে ৮৬টি সোনার বারের ওজন ৯ কেজি ৯৭৬ গ্রাম। সব মিলিয়ে হয় ৮৫৫ ভরি। বর্তমান বাজারমূল্যে এই সোনার বারের দাম প্রায় সোয়া ছয় কোটি টাকা বলে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা এবং কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরে কর্মকর্তারা জানান।

কর্মকর্তারা জানান, শনিবার সকাল সাড়ে আটটায় সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট অবতরণ করে। যাত্রীরা নেমে যাওয়ার পর একটি আসনের নিচে কালো স্কচটেপ মোড়ানো অবস্থায় সোনার বারগুলো উদ্ধার করা হয়।
কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর উপপরিচালক একেএম সুলতান মাহমুদ প্রথম আলোকে বলেন, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ব্যাগেজ রুলের আওতায় একজন যাত্রী বিদেশ থেকে ফেরার সময় ঘোষণা দিয়ে সর্বোচ্চ ২৩৪ গ্রাম ওজনের সোনার বার নিয়ে আসতে পারেন। বৈধভাবে সোনার বার আমদানির জন্য শুল্ক-কর পরিশোধ করতে হয়। ব্যাগেজ রুলের আওতায় প্রতি ভরিতে (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) শুল্ক-কর দুই হাজার টাকা।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন