default-image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, সুস্থ হওয়া ও মৃত্যুর ঘটনার দেশ-বিদেশের তথ্যচিত্র ও পরিসংখ্যান, তুলনামূলক চিত্র তুলে ধরার ডিজিটাল সার্ভিস 'কোভিড-১৯ ট্র্যাকার' উদ্বোধন করা হয়েছে। এ ছাড়া ত্রাণ পেতে ৩৩৩#২ হটলাইন ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছে সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ।

আজ সোমবার বিকেলে অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

বিকেল পাঁচটা থেকে 'কোভিড-১৯ ট্র্যাকার' ও ত্রাণ পেতে ৩৩৩#২ হটলাইন ব্যবহার বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে আইসিটি বিভাগ। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, করোনা মহামারির এ সময়ে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, বিনোদন ও নিরবচ্ছিন্ন সাইবার কানেকটিভিটি নিয়ে সরকার কাজ করছে।

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় আইসিটি বিভাগের আয়োজনে বিভিন্ন কার্যক্রমের বর্ণনা দেন প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। প্রতিমন্ত্রী বলেন, 'মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সঙ্গে আলোচনা করে করোনা মোকাবিলায় প্রতিনিয়ত আইসিটি বিভাগ কাজ করে যাচ্ছে। করোনা মোকাবিলায় উদ্ভাবনী বিভিন্ন উদ্যোগের জন্য ন্যাশনাল হ্যাকাথনের আয়োজন করা হয়েছে। ইতিমধ্যে ৩৩৩ হটলাইনে ৪২ হাজার চিকিৎসক স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন, ১২টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আইসিটি বিভাগ টেলিমেডিসিন সেবার চালু করেছে।'

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সংসদ টেলিভিশনের মাধ্যমে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের সঙ্গেও আইসিটি বিভাগ কাজ করছে।

এখন থেকে মধ্যবিত্ত মানুষ যাঁরা আত্মসম্মানবোধের জন্য সাহায্য চাইতে পারেন না-এমন মানুষেরা ৩৩৩#২ হটলাইন নম্বরে ফোন দিয়ে ত্রাণ চাইলে সরকার ত্রাণের ব্যবস্থা করবে। এক্ষেত্রে ত্রাণ গ্রহণকারীর পরিচয় গোপন রাখা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সূচনা বক্তব্য দেন আইসিটি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এন এম জিয়াউল আলম।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0