default-image

গুরুতর আদালত অবমাননার দায়ে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ। তাঁকে তিন মাসের জন্য সুপ্রিম কোর্টের দুই বিভাগে আইন পেশা পরিচালনা থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত দিয়েছেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত।

পাশাপাশি ইউনুছ আলী আকন্দকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। তিনি এই জরিমানা দিতে ব্যর্থ হলে তাঁকে ১৫ দিনের কারাবাস করতে হবে।

আজ সোমবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন সাত সদস্যের ভার্চ্যুয়াল আপিল বিভাগ এই রায় দেন।

বিজ্ঞাপন

ফেসবুকে আদালত নিয়ে অবমাননাকর স্ট্যাটাসের বিষয়টি নজরে আনার পর গত ২৭ সেপ্টেম্বর সর্বোচ্চ আদালত ইউনুছ আলী আকন্দের প্রতি আদালত অবমাননার নোটিশ জারি করেন।

পাশাপাশি এই নোটিশের বিষয়ে ব্যাখ্যা জানাতে ১১ অক্টোবর ইউনুছ আলী আকন্দকে আদালতে উপস্থিত হতে নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ।

এ ছাড়া এই আইনজীবীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্লক ও আপত্তিকর ওই স্ট্যাটাস সরাতে বিটিআরসিকে নির্দেশ দেওয়া হয়। অন্তর্বর্তী সময়ের জন্য তাঁকে সুপ্রিম কোর্টের দুই বিভাগে আইন পেশা পরিচালনা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়।

ধার্য তারিখে (১১ অক্টোবর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন সাত সদস্যের ভার্চ্যুয়াল আপিল বিভাগে হাজির হন ইউনুছ আলী আকন্দ। ফেসবুকে অবমাননাকর স্ট্যাটাস দেওয়ায় নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেন তিনি।

গতকাল শুনানি নিয়ে আপিল বিভাগ বিষয়টি রায়ের জন্য আজকের দিন রাখেন।

আজ আদালতের শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস, আইনজীবী ওয়াজিউল্লাহ যুক্ত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0