বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নগরের দুই নম্বর গেট এলাকায় মানববন্ধনে দাঁড়ান সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, ছাত্র ফেডারেশন, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলসহ বিভিন্ন ছাত্রসংগঠন ও নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের নেতা-কর্মীরা। পরে সেখান থেকে ছাত্র ফেডারেশন চট্টগ্রাম নগরের যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুর রুদ্র, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট চট্টগ্রাম নগরের সাংগঠনিক সম্পাদক মিরাজ উদ্দিন, পটিয়া সরকারি কলেজের ছাত্র জাহিদুল রাফি ও শিক্ষার্থী জামশেদুল হককে পুলিশ নিয়ে যায়।
সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট চট্টগ্রামের সভাপতি রায়হান উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার দাবিতে ছাত্র ফ্রন্টসহ কয়েকটি বাম ছাত্রসংগঠন মিছিল বের করে। মানববন্ধনে দাঁড়ায়। এরপর পুলিশ অনুমতির কথা বলে বাধা দেয়। লাঠিপেটা করে।

default-image

এ বিষয়ে পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহেদুর কবীর প্রথম আলোকে বলেন, আন্দোলনকারীদের অ্যাজেন্ডা কী ছিল, সেটি জানতে চারজনকে আনা হয়েছে। তাঁদের অভিভাবকেরা এসেছেন। মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হবে। লাঠিপেটার ঘটনা ঘটেনি।

গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের নেতা আরিফ মইনুদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, পুলিশের লাঠিপেটায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তিনি পাঁচলাইশ থানায় আছেন। ওসি বলেছেন, জিজ্ঞাসাবাদ করে সবাইকে ছেড়ে দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন