চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে তলব

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীর বন্দর এলাকায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে আদালতের নির্দেশনা প্রতিপালন না করার বিষয়ে ব্যাখ্যা জানাতে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) চেয়ারম্যানকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ২৬ জানুয়ারি তাঁকে আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ রোববার এ আদেশ দেন।

অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে আদালতের নির্দেশ বাস্তবায়নের অগ্রগতি বিষয়ক শুনানিতে এ আদেশ দেওয়া হয়। রিট আবেদনকারীর পক্ষে আইনজীবী মনজিল মোরসেদ শুনানিতে অংশ নেন। অন্যদিকে বন্দর কর্তৃপক্ষের পক্ষে আইনজীবী কে এস সালাউদ্দিন আহমেদ ছয় মাসের সময়ের আবেদন জানান।

আদেশের বিষয়টি জানিয়ে মনজিল মোরসেদ বলেন, গত বছরের ৯ এপ্রিল আদালত এক আদেশে কর্ণফুলী নদীর সীমানায় ৫০ একর জায়গা জুড়ে থাকা অবৈধ স্থাপনা ৩০ দিনের মধ্যে উচ্ছেদ করতে নির্দেশ দেন। এর ধারাবাহিকতায় ২০ একর জায়গার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে বন্দর কর্তৃপক্ষ সময়ের আবেদন জানায়। এর পর গত ২৯ আগস্ট হাইকোর্ট অপর এক আদেশে ৩ মাস সময় দিয়ে বাকি অবৈধ স্থাপনা ১৪ নভেম্বরের মধ্যে উচ্ছেদ করতে বলেন। এ অবস্থায় বন্দর কর্তৃপক্ষের আইনজীবী আবার ছয় মাস সময় চেয়ে আবেদন করেন।

রিট আবেদনকারীর আইনজীবী মনজিল মোরসেদ বলেন, আদালত বলেছেন ইদানীং দেখা যাচ্ছে অনেক কর্মকর্তা আদালতের আদেশ বাস্তবায়নে অনীহা দেখাচ্ছেন। আদেশ বাস্তবায়ন না করা অপ্রত্যাশিত। নির্দেশ পালনে ব্যর্থতার বিষয়ে ব্যাখ্যা জানাতে ২৬ জানুয়ারি চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে। বন্দর এলাকায় বাকি ৩০ একর জায়গা জুড়ে থাকা অবৈধ স্থাপনা এ সময়ের মধ্যে উচ্ছেদ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন