মামলার বাদী ও সুদীপ্তর বাবা অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক মেঘনাথ বিশ্বাস মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে বদলির দাবি জানান। সোমবার শুনানির দিন পেছানোর পর তিনি হতাশা প্রকাশ করেন। বলেন, ‘কবে বিচার শুরু হবে, জানি না।’

চট্টগ্রাম মহানগর সরকারি কৌঁসুলি মো. ফখরুদ্দিন চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, আসামিরা সময়ের আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন। আগামী ১৮ জুলাই পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন আদালত।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর নগরের নালাপাড়া এলাকায় বাসা থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয় নগর ছাত্রলীগের সহসম্পাদক সুদীপ্ত বিশ্বাসকে। ফেসবুকে লেখালেখির জেরে দলীয় কোন্দলের কারণে তাঁকে খুন করা হয় বলে তদন্তে উঠে আসে। সুদীপ্তর বাবার করা মামলায় গত বছরের ১ ফেব্রুয়ারি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ২৪ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়। এর মধ্যে নগরের লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম ওরফে মাসুমসহ ২৪ জনকে আসামি করা হয়। দিদারুলের নির্দেশে খুন ও আইনুল কাদেরকে নেতৃত্বদানকারী বলা হয় অভিযোগপত্রে। তবে দিদারুল এ অভিযোগ শুরু থেকেই অস্বীকার করে আসছেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন