বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বেলা জানায়, জাতীয় দিবসসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচি ওই পার্কে হয়ে থাকে। প্রতিদিন দেড় থেকে দুই হাজার ব্যক্তি পার্কে ভ্রমণ করে থাকেন। ঝিনাইদহ পৌরসভা পার্কটির শ্রেণি পরিবর্তন করে বহুতল বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। পার্কে থাকা শিশুদের খেলার সরঞ্জাম সরিয়ে নেওয়া হয়। বুলডোজার দিয়ে গাছ উপড়ে ফেলে মাটি ভরাট করা হয় বলে গণমাধ্যমে খবর হয়। এমন প্রেক্ষাপটে এলাকাবাসী পার্কটি রক্ষার দাবিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেন। এতে প্রতিকার না পেয়ে বেলা বরাবর আইনগত সহায়তা চেয়ে আবেদন করলে বেলা ২০১৯ সালের ৭ নভেম্বর রিটটি করে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন