বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষকেরা জানান, গত ৭ জুলাই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাঈদা নাসরিন রাজধানীর একটি হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ইতিহাস বিভাগের একাডেমিক সভায় বিভাগের সেমিনারকে ‘সাঈদা নাসরিন স্মৃতি পাঠাগারের’ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তাঁর স্মৃতির প্রতি সম্মান রেখে একটি কর্নার তৈরি করা হবে পাঠাগারে। যেখানে তাঁর সব বইপত্র, গবেষণা স্থান পাবে। পাশাপাশি বিভাগের ব্যবহৃত জিনিসপত্র সাজিয়ে রাখা হবে।

ইতিহাস বিভাগের চেয়ারম্যান শামসুন নাহার প্রথম আলোকে বলেন, সাঈদা নাসরিনের স্মৃতি ধরতে রাখতে এই উদ্যোগ। এতে বিভাগের শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবেন। তাঁদের প্রিয় শিক্ষককে শ্রদ্ধায় আজীবন মনে রাখবেন। সাঈদার পরিবারের পক্ষ থেকেও বিভাগে একটি বৃত্তি চালু করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

default-image

সাঈদা নাসরিন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশারের স্ত্রী। তাঁদের এক শিশুপুত্র আছে। সাঈদা নাসরিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাজীবনে কৃতিত্বের জন্য রাষ্ট্রপতি স্বর্ণপদক পান। এ ছাড়া ৩২তম বিসিএসেও তিনি উত্তীর্ণ হয়েছিলেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন