বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এর মধ্যে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা কোভিশিল্ড প্রয়োগ হয়েছে ১ কোটি ২৪ লাখ ১ হাজার ৯৭৯ ডোজ। ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা প্রয়োগ হয়েছে ১ লাখ ৩১১ ডোজ। চীনের সিনোফার্মের টিকা প্রয়োগ হয়েছে ১ কোটি ৮৪ লাখ ৩০ হাজার ২৩৭ ডোজ। আর মডার্নার টিকা প্রয়োগ হয়েছে ৪৯ লাখ ১ হাজার ৫৮৮ ডোজ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত ৪ কোটি ১৮ লাখ ৪৫ হাজার ২৬৯ জন করোনা টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন। এর মধ্যে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর দিয়ে ৪ কোটি ১২ লাখ ৭৭ হাজার ২৫৯ জন এবং পাসপোর্ট নম্বর দিয়ে ৫ লাখ ৬৮ হাজার ১০ জন নিবন্ধন করেছেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন