বিজ্ঞাপন

মারা যাওয়া মোহাম্মদ ফারহান চট্টগ্রাম নগরের চান্দগাঁও বহদ্দারহাটের ফরিদারপাড়া এলাকার মোহাম্মদ জামাল খানের ছেলে। তিনি চট্টগ্রামের হাজেরা-তজু কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার রাতে ফারহানসহ তিন বন্ধু সাতকানিয়ার মৈশামুড়া এলাকায় আরেক বন্ধু মোহাম্মদ তুহিনের গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে চার বন্ধু মিলে গ্রামের পাশে নাপিতের টেক এলাকায় সাঙ্গু নদে গোসল করতে নামেন। একপর্যায়ে তাঁরা নদ পার হয়ে উত্তর পাড়ে গিয়ে ওঠেন। পরে তাঁরা উত্তর পাড় থেকে সাঁতার কেটে দক্ষিণ পাড়ে ফিরে আসার সময় ফারহান নদের পানিতে ডুবে যান। এ সময় নদে জোয়ার চলছিল। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় আড়াই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়েও ফারহানকে উদ্ধার করতে পারেনি।

সাতকানিয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কার্যালয়ের স্টেশন কর্মকর্তা মো. জুলহাস উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে নাপিতের টেক এলাকায় সাঙ্গু নদে লাশ ভেসে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ফারহানের লাশটি উদ্ধার করেন।

সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, ফারহানের লাশ উদ্ধার করে পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে। তাঁর পরিবারের সদস্যদের কাছে খবর পাঠানো হয়েছে। তাঁরা এলে লাশটি হস্তান্তর করা হবে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন