নিহত কৃষকের নাম মতি মিয়া (৪০)। তিনি সাতপাটি গ্রামের মৃত উমেদ আলী ফকিরের ছেলে। অভিযুক্ত ব্যক্তিরা হলেন মতি মিয়ার চাচা উছমান আলী (৬৫), তাঁর ছেলে ওয়াসিম মিয়া (৩০) ও জসিম মিয়া (২৬)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জমিসংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে উছমান আলী ও মতি মিয়ার বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে শনিবার সন্ধ্যায় উভয়ের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে উছমান ও তাঁর ছেলেরা মতি মিয়ার ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালান। এতে মতি মিয়া গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে মতি মিয়ার মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উভয় পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া শুরু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পরে উছমান ও তাঁর পরিবারের লোকজন বাড়ি ছেড়ে চলে যান।

এলাকায় না পাওয়ায় উছমান আলী ও তাঁর ছেলেদের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার শাকের আহম্মদ খান বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। জড়িত ব্যক্তিদের আটক করতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।