বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পরিবহন খাতের মালিক-শ্রমিকেরা বলছেন, টোলের হার বৃদ্ধি পেলে এসব সেতু ব্যবহারকারীদের ভাড়াও বাড়বে। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) বাসভাড়া নির্ধারণ করার সময় টোলের ব্যয় আলাদা যোগ করার কথা বলে দেয়। অন্যদিকে পণ্য পরিবহনের সরকারি–নির্ধারিত ভাড়া নেই। ফলে মালিক-শ্রমিকদের সঙ্গে ব্যবহারকারীরা দর-কষাকষি করে ভাড়া ঠিক করেন। যাত্রীবাহী বড় বাস ও মালবাহী যানবাহনের টোলই সবচেয়ে বেশি বাড়ানো হয়েছে।

মুক্তারপুর সেতুর মাধ্যমে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের সঙ্গে মুন্সিগঞ্জের সংযোগ স্থাপিত হয়েছে। এর নাম ষষ্ঠ বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু। এটি ২০০৮ সালে চালু হয়েছে। চালুর পর এই প্রথম এই সেতুর টোলের হার বাড়ানো হচ্ছে। অন্যদিকে বঙ্গবন্ধু সেতু দেশের উত্তরাঞ্চলকে ঢাকাসহ সারা দেশের সঙ্গে যুক্ত করেছে। এই সেতু দিয়ে চলাচলকারী যানবাহনের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। এই সেতুর টোল একাধিকবার বাড়ানো হয়েছে। সর্বশেষ বর্ধিত টোল হার কার্যকর হয় ২০১২ সালে।

বঙ্গবন্ধু সেতুতে মোটরসাইকেলের নতুন টোল হার হবে ৫০ টাকা। এখন এই হার ৪০ টাকা। কার ও জিপের এখন টোল লাগছে ৫৫০ টাকা। আগে এই যানের টোল ছিল ৫০০ টাকা। ছোট বাসের টোল ৬৫০ থেকে বাড়িয়ে ৭৫০ টাকা করা হয়েছে। বড় বাসের টোল হবে ১০০০ টাকা। আগে বড় বাসের টোল ছিল ৯০০ টাকা। ছোট ট্রাকের টোল ৮৫০ থেকে বেড়ে দাঁড়াচ্ছে ১০০০ টাকা। মাঝারি ট্রাকের টোল বর্তমানে ১ হাজার ১০০ টাকা। নতুন টোল হারে মাঝারি ট্রাকের (৫-৮ টন) টোল ধরা হয়েছে ১ হাজার ২৫০ টাকা। ৮ থেকে ১১ টনের ট্রাকের টোল ২০০ টাকা বাড়িয়ে ১ হাজার ৬০০ টাকা করা হয়েছে। এর চেয়ে বড় ট্রাক ও টেইলরের টোল নির্ধারণ করা হয়েছে ২ হাজার থেকে ৩ হাজার টাকা। ট্রেইলর বা অন্য বড় যানের জন্য আলাদা টোল হার ছিল না।

এর বাইরে বঙ্গবন্ধু সেতুতে ট্রেন চলাচল করে। এর জন্য রেল কর্তৃপক্ষ থেকে বছরে এক কোটি টাকা করে পায় সেতু বিভাগ।

এদিকে মুক্তারপুর সেতুর টোল ১০ থেকে সর্বোচ্চ ৫০ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে। এর মধ্যে কার/টেম্পোর টোল ধরা হয়েছে ৫০ টাকা। যা আগে ৪০ টাকা ছিল। ছোট ও বড় বাসের টোল ৫০ টাকা করে বাড়িয়ে যথাক্রমে দেড় শ ও আড়াই শ টাকা করা হয়েছে। ট্রাকের টোলও ৫০ টাকা বেড়েছে। আগে ট্রেইলরের জন্য আলাদা টোল হার না থাকলেও নতুন করে তা যুক্ত হয়েছে। এগুলোর শ্রেণিভেদে টোলের হার ৬০০ থেকে ১০০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

সেতু কর্তৃপক্ষের প্রধান প্রকৌশলী কাজী মো. ফেরদৌস প্রথম আলোকে বলেন, নতুন টোলের হার শিগগিরই প্রয়োগ করা হবে। এর আগে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে সর্বসাধারণকে জানানো হবে। পাশাপাশি টোল আদায়সংক্রান্ত সফটওয়্যার হালনাগাদ করা হবে। তিনি জানান, দীর্ঘদিন টোলের হার বাড়ানো হয়নি। কিন্তু এ সময়ে সেতুর রক্ষণাবেক্ষণ খরচ বেড়েছে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন