অধ্যাপক কামরুল হাসান খান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। তিনি পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের মহাসচিব ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যাথলজি বিভাগের অধ্যাপক। আজ মঙ্গলবার তিনি দায়িত্ব নিয়েছেন। বিএসএমএমইউর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এ নিয়োগ দিয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুযায়ী, কামরুল হাসান খান আগামী তিন বছরের জন্য উপাচার্য পদে দায়িত্ব পালন করবেন। তিনি ১৯৯৯ সাল থেকে বিএসএমএমইউ-এর শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

দায়িত্ব নেওয়ার পর নতুন উপাচার্য বিএসএমএমইউতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে এবং ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। মুক্তিযোদ্ধা কামরুল হাসান খান ১৯৫৫ সালের ১২ মার্চ টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থানার ভাবনদত্ত গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর স্ত্রী অধ্যাপক মাসুদা বেগম বিএসএমএমইউ-এর হেমাটোলজি বিভাগে কর্মরত।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, কামরুল হাসান খান টাঙ্গাইলের বিন্দুবাসিনী উচ্চবিদ্যালয় থেকে ১৯৭২ সালে বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসি, ১৯৭৪ সালে নটর ডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। তিনি এমবিবিএস পাস করেছেন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ থেকে। ১৯৯৪ সালে সাবেক আইপিজিএমঅ্যান্ডআর (বর্তমানে বিএসএমএমইউ) থেকে প্যাথলজিতে এমফিল ডিগ্রি অর্জন করেন। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে ১৯৮৪ সাল থেকে ১৯৮৯ সাল পর্যন্ত ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও জেলা হাসপাতালে মেডিকেল অফিসার এবং ১৯৮৯ থেকে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত প্রভাষক হিসেবে চাকরি করেছেন। ১৯৯১ সালে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল  বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থী হিসেবে অধ্যয়ন করেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0