বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সেখানে রোজিনা ইসলাম বলেন, ‘ভালো সাংবাদিকতাই সাহসের জায়গা। পাঠকেরা সুসাংবাদিকতার পক্ষে ছিলেন ও আছেন। আমি সুসাংবাদিকতা করে যাব।’ তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে নিগ্রহ, নির্যাতন ও মামলার শিকার হওয়ার ঘটনায় তাঁর পাশে থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান। প্রথম আলোকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার অফিস সব সময় যেভাবে পাশে ছিল, তা অনেক বড় বিষয়।’

default-image

নেদারল্যান্ডসের আমস্টারডামভিত্তিক সংস্থা ফ্রি প্রেস আনলিমিটেড রোজিনা ইসলামকে ‘ফ্রি প্রেস অ্যাওয়ার্ড-২০২১’ দিয়েছে। গত মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত সোয়া ১২টায় এ পুরস্কার ঘোষণা করা হয়।

প্রথম আলো কার্যালয়ে আয়োজিত রোজিনা ইসলামকে অভ্যর্থনা জানানোর অনুষ্ঠানে প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান বলেন, এই পুরস্কারপ্রাপ্তি রোজিনার সাহস ও দক্ষতার প্রমাণ। রোজিনা তাঁর এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখবেন। তিনি এমন একজন প্রতিবেদক, যিনি যেকোনো পরিস্থিতিতে প্রতিবেদনের তথ্য সংগ্রহ করে নিয়ে আসতে পারেন। তিনি বলেন, চলতি বছরটি প্রথম আলোর জন্য চ্যালেঞ্জিং ছিল। সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে প্রথম আলোর আরও ভালো করার সুযোগ রয়েছে।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রথম আলোর ব্যবস্থাপনা সম্পাদক সাজ্জাদ শরিফ। তিনি বলেন, রোজিনা আগেও একাধিক পুরস্কার পেয়েছেন। তবে সেরা অদম্য সাংবাদিকের পুরস্কারের তাৎপর্য অন্য রকম।

প্রথম আলোর ফিচার সম্পাদক সুমনা শারমীন বলেন, রোজিনার এই পুরস্কার শুধু তাঁকে নয়, প্রথম আলোকেও অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন প্রথম আলোর হেড অব অনলাইন শওকত হোসেন, হেড অব রিপোর্টিং টিপু সুলতান, বিশেষ প্রতিনিধি শিশির মোড়ল, উপবার্তা সম্পাদক রাজীব হাসান, ডেপুটি হেড অব রিপোর্টিং ইমাম হোসেন সাঈদ ও তানভীর সোহেল।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন