বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত ২৪ আগস্ট জননিরাপত্তা বিভাগের রাজনৈতিক শাখা থেকে যে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে, তাতে বলা সাইফুল বাতেন টিটোর লেখা ও জংশন থেকে প্রকাশিত উপন্যাস ‘বিষফোঁড়া’র বিষয়বস্তু দেশের শান্তিশৃঙ্খলা পরিপন্থী। বইটি জননিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে বিবেচিত হওয়ায় বাংলাদেশে বইটি নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হলো।
বিষফোঁড়া উপন্যাসের প্রকাশক মোশাররফ মাতুব্বর প্রথম আলোকে বলেন, নিষেধাজ্ঞা কেন দেওয়া হলো তিনি বুঝতে পারছেন না। বিষফোঁড়া বইটি এ বছরের বইমেলায় প্রকাশিত হয়। বইটিতে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লাগতে পারে এমন অভিযোগ করায় পুলিশ তাঁদের কাছ থেকে বই এর ২০টি কপি নিয়ে যান। পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাঁরা জানান, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লাগে এমন কিছু বইটিতে নেই। পরে তাঁরা মেলার পুরো সময়ই বইটি বিক্রি করেছেন।

জননিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আবু বকর ছিদ্দীক প্রথম আলোকে বলেন, বইমেলায় বইটি প্রকাশের পর গোয়েন্দা সংস্থার পক্ষ থেকে উদ্বেগের বিষয়টি জানানো হয়। বইটির কারণে কওমী মাদ্রাসার শিক্ষকদের অনুভূতিতে আঘাত লেগেছে বলে তারা জানায়। তাঁরা বইটি পড়ে এই অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পেয়েছেন। তবে প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বইটির মূল্যায়নে তাঁরা কমিটি করেননি। নিজেরাই পড়েছেন।
তবে জংশনের কর্ণধার মোশাররফ মাতুব্বর বলেন, জননিরাপত্তা বিভাগ কেন বইটি নিষিদ্ধ করল সে সম্পর্কে তাঁকে জানায়নি। তিনি বইটির নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত প্রকাশনায় যাবেন না বলে জানিয়েছেন প্রথম আলোকে। তাঁরা আইনজীবীদের সঙ্গে এ নিয়ে পরামর্শ করবেন। বই প্রকাশনায় জংশন বছর দুয়েক আগে এসেছে। এখন পর্যন্ত ২৮ টি বই তারা প্রকাশ করেছে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন