default-image

পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ কমিটির প্রধান ও সাংসদ আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ অসুস্থ হয়ে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাঁকে হাসপাতালের আইসোলেশন বিভাগের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) রাখা হয়েছে।

আজ বুধবার সকালে প্রথম আলোকে এই তথ্য জানান আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর একান্ত সচিব (পিএস) খায়রুল বাশার।

খায়রুল বাশার বলেন, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে রাত ৯টার দিকে তাঁকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি স্কয়ারের আইসোলেশন বিভাগের আইসিইউতে রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

খায়রুল বাশার জানান, আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ বেশ কিছুদিন ধরে সংসদ ভবন এলাকার সরকারি বাসভবনে ছিলেন। গতকাল বিকেলেও তিনি সুস্থ ছিলেন। সন্ধ্যার দিকে তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। পরে দেখা যায়, তাঁর অক্সিজেনের পরিমাণ ৯০-এ নেমে এসেছে। তাঁর কাশি হচ্ছিল। এরপর প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শক্রমে আবুল হাসানাত আবদুল্লাহকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে তাঁর অক্সিজেনের পরিমাণ আরও কমে যায়। চিকিৎসার একপর্যায়ে অবশ্য তাঁর অক্সিজেনের পরিমাণ ১০০-এর কাছাকাছি চলে আসে। পরে তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হয়। আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে পরীক্ষার ফল পাওয়া যাবে।

আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফুফাত ভাই এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাগনে।

বিজ্ঞাপন

আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর ছেলে সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ এখন বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র।

প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা ও পানিসম্পদমন্ত্রী আবদুর রব সেরনিয়াবাতের ছেলে আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট আবদুর রব সেরনিয়াবাতকেও হত্যা করেছিল ঘাতক চক্র।

সাংসদ আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালেও বরিশাল-১ (গৌরনদী-আগৈলঝাড়া) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

মন্তব্য পড়ুন 0