বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ডিএমপি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ওয়াই বি আই সিদ্দিকী ‘বুরহান সিদ্দিকী’ নামেও পরিচিত। তিনি ১৯৯৮ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ২০০০ সালের ৭ জুন পর্যন্ত পুলিশের ১৬তম আইজিপি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৯-৯০ সালে নামিবিয়ায় জাতিসংঘের অধীনে শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার হিসেবে অংশ নিয়ে প্রধান লিয়াজোঁ অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

কর্মজীবনে এ ওয়াই বি আই সিদ্দিকী পানিসম্পদ ও বন্যা নিয়ন্ত্রণ মন্ত্রণালয় এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৪ সালে সরকারি চাকরি থেকে অবসর গ্রহণ করেন। এ ছাড়া বিটিভির তালিকাভুক্ত সংগীতশিল্পী ও উপস্থাপক ছিলেন তিনি।

এ ওয়াই বি আই সিদ্দিকী ১৯৪৫ সালে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবার নাম এ এম এল এ সিদ্দিকী। তিনি বেড়ে ওঠেন চট্টগ্রামে এবং কলেজের পড়াশোনা শেষ করে লাহোরে চলে যান। সাবেক মন্ত্রী এল কে সিদ্দিকী তাঁর ভাই। তিনি ১৯৭১ সালে রেহানা সিদ্দিকীর সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তাঁদের এক ছেলে লুৎফি সিদ্দিকী এবং এক মেয়ে হুসনা সিদ্দিকী। লুৎফি সিদ্দিকী ইউনাইটেড ব্যাংক অব সুইজারল্যান্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

এ ওয়াই বি আই সিদ্দিকী ১৯৭০ সালে এএসপি হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন