মামলার তথ্যে জানা যায়, ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি ও মারধরের অভিযোগে ২০১৮ সালের ১৯ এপ্রিল ইউনিভার্সিটি অ্যাডমিশন কোচিং সেন্টারের পরিচালক রাশেদ মিয়া বাদী হয়ে নগরের পাঁচলাইশ থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে চলতি বছরের ২৩ জানুয়ারি এ মামলায় নুরুল আজিমসহ দুজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন নগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক বিশ্বজিৎ বর্মণ। এতে বলা হয়, ২০১৮ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি বাদীর অফিসে গিয়ে আসামিরা ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। বাদী এত টাকা দিতে পারবেন না জানালে তাঁকে চড়থাপ্পড় মারা হয়। পরে ১৩ এপ্রিল বাদী তাঁর সুগন্ধা এলাকার বাসা থেকে বের হয়ে মুরাদপুর গেলে হকিস্টিক দিয়ে তাঁকে মারধর করেন দুই আসামি।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন