২২ সেপ্টেম্বর বিটিআরসি এক আদেশে জানিয়েছে, আইএসপি লাইসেন্সিং গাইডলাইন অনুযায়ী পাঁচ বছর মেয়াদ শেষ হলে লাইসেন্স নবায়নের জন্য কমিশন বরাবর আবেদন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এই নির্দেশনা না মানায় এ শ্রেণির ৬৪টি, বি শ্রেণির ২টি এবং সি শ্রেণির ১৮টি—মোট ৮৪টি আইএসপি প্রতিষ্ঠানকে ব্যান্ডউইডথ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার জন্য আইআইজি অপারেটরদের নির্দেশ দেয় বিটিআরসি।

ট্যারিফ অনুমোদনের জন্য কমিশন বরাবর আবেদন করার নীতি না মানায় এ শ্রেণির ১২৫টি, বি শ্রেণির ১৫টি, সি শ্রেণির ৮৮টিসহ মোট ২২৮টি লাইসেন্সধারী আইএসপি প্রতিষ্ঠানের ব্যান্ডউইডথ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার জন্য আইআইজি অপারেটরদের নির্দেশ দেয় বিটিআরসি। ২১ সেপ্টেম্বর বিটিআরসি এই নির্দেশনা জারি করে।

বিটিআরসি ২১ সেপ্টেম্বর আরেকটি আদেশে জানিয়েছে, লাইসেন্স নবায়ন ও ট্যারিফ অনুমোদনের জন্য কমিশন বরাবর আবেদন না করায় এ শ্রেণির তিনটি, সি শ্রেণির একটিসহ লাইসেন্সধারী মোট চারটি আইএসপি প্রতিষ্ঠানের ব্যান্ডউইডথ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে আইআইজি অপারেটরদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিটিআরসির ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড অপারেশনস বিভাগের জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক শিবলী ইমতিয়াজের স্বাক্ষরে তিনটি আদেশ জারি করা হয়। আদেশে বিটিআরসি এসব আইএসপি প্রতিষ্ঠানের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার পাশাপাশি নতুন কোনো সংযোগ না দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছে। সংস্থাটি বলেছে, নির্দেশনার কোনো ব্যত্যয় হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে তারা। এ ছাড়া আদেশ জারির দিন থেকেই ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

আইআইজি ফোরামের মহাসচিব আহমেদ জুনায়েদ প্রথম আলোকে বলেন, বিটিআরসি যখন কোনো নির্দেশনা দেয়, তা মানতে সবাই বাধ্য। যেসব আইআইজি সরকারের আদেশগুলো নিয়মিত মেনে চলে, তারা সবাই সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার নির্দেশ পালন করেছে।

যে তিন শ্রেণির আইএসপির প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার পদক্ষেপ নিয়েছে বিটিআরসি, তারা সব থানা পর্যায়ের বলে জানান আইএসপিএবির সভাপতি ইমদাদুল হক। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, এই ৩১৬টির কেউ এখন ব্যবসা পরিচালনায় নেই, কেউ বিষয়টিকে এত দিন পাত্তা দেননি। আবার অনেকে হয়তো সঠিক পদ্ধতিতে আবেদন করেননি।

ব্যবসা করতে হলে বিটিআরসির নীতিমালা মানতে হবে উল্লেখ করে আইএসপিএবি সভাপতি বলেন, তাঁরা সংগঠনের পক্ষ থেকে তাদের সদস্যদের নির্দেশনা মানার জন্য সচেতন করে থাকেন। তবে তিনি জানান, নিষেধাজ্ঞার মধ্যে পড়া তাদের কোনো সদস্য যদি যৌক্তিক কারণ তাদের দেখাতে পারেন, তবে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে আইএসপিএবি বিটিআরসিকে সুপারিশ করবে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন