পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী ওই তরুণী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান–স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে খুলশী থানায় একটি মামলা করেছেন।

খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সন্তোষ কুমার চাকমা প্রথম আলোকে বলেন, রিকশায় করে নগরের জিইসি মোড় থেকে বায়েজিদ বোস্তামী এলাকার নিজ বাসায় ফিরছিলেন ওই তরুণী। রিকশাটি জিইসি বাটা গলি এলাকায় উড়ালসড়কের নিচে পৌঁছালে গতিরোধ করা হয়। পরে ওই তরুণীকে রিকশা থেকে নামিয়ে কাছের একটি টংদোকানের পাশে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন ছয় যুবক।

ওই তরুণীকে বহনকারী রিকশার চালকের কাছে কোনো মুঠোফোন ছিল না। বিষয়টি তিনি আরেক রিকশাচালককে জানান। পরে ওই রিকশাচালক ৯৯৯-এ ফোন করেন। খবর পেয়ে খুলশী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, গ্রেপ্তার তিনজনকে সোমবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে আগামীকাল মঙ্গলবার রিমান্ডের আবেদন করা হবে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন