হাসপাতালের আবাসিক সার্জন এস এম আইউব হোসেন বলেন, তাঁর শরীরের ৩৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল।

ঢাকা মেডিকেল কলেজের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বলেছেন, তাঁর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

১৩ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে বড়বাড়ি এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে হাজী ওয়াহেদ আলী সরকার সিএনজি ফিলিং স্টেশনে সিলিন্ডারবোঝাই একটি কাভার্ড ভ্যান গ্যাস নিতে যায়। স্থানীয় একটি কারখানার অর্ধশতাধিক সিলিন্ডার ওই কাভার্ড ভ্যানে ছিল। গ্যাস নেওয়ার সময় হঠাৎ একটি সিলিন্ডারে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে কাভার্ড ভ্যানটিতে আগুন লেগে পাঁচজন দগ্ধ হন।

পরে একে একে চিকিৎসাধীন চারজন মারা যান। তাঁরা হলেন—আল আমিন (৩০), মো. পারভেজ (৩৩), মিঠু মিয়া (২৬) ও সিরাজুল ইসলামের (২৮)।