মীর সীমন হায়দারের বাবা মীর মনোয়ার আলী বলেন, অর্থের অভাবে গত সাত মাস ধরে তাঁর ছেলের চিকিৎসা বন্ধ রয়েছে। এর আগে প্রতি মাসে খরচ হতো প্রায় এক লাখ টাকা। এই চিকিৎসার খরচ সামলাতে ধীরে ধীরে সহায়-সম্বল সব বিক্রি করে দিয়েছেন তিনি।

মীর সীমন চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি গবেষণার জন্য মনোনীত হয়েছেন। এই পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার জন্য দরকার সুস্থ থাকা। প্রয়োজন চিকিৎসা। এ জন্য সবার সহযোগিতা চেয়েছেন মীর সীমন হায়দারের বাবা মীর মনোয়ার আলী।

সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা: রকেট, বিকাশ ও নগদ নম্বর: ০১৭৮৪১৯৩৩০৩ (ব্যক্তিগত), মীর সীমন হায়দার, অ্যাকাউন্ট নম্বর: ২২২.১৫১.৪৯৬৩৮, ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, আটি বাজার শাখা, কেরানীগঞ্জ, ঢাকা।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন