রিতার মামা অশোক দাস বলেন, রিতার ক্যানসার প্রাথমিক পর্যায়ে আছে বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন। তাঁরা বলেছেন চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে উঠতে পারে সে।

এদিকে মেয়েটির অসহায় বাবা বলেন, ‘ভিটা আর টিনশেড ঘরডা ছাড়া কিছুই নাই আমার।’ আর মায়ের আকুতি, ‘আদরের রিতা কি টাকার অভাবে চোখের সামনে মরে যাবে?’ মেয়েটিকে বাঁচাতে বিত্তবানদের সহায়তা চেয়েছেন মা–বাবা।

সহায়তা পাঠানো যাবে: শ্যামল চন্দ্র দাস, সঞ্চয়ী হিসাব নম্বর ৪৩০৬৭০১০০৫৯০৬, সোনালী ব্যাংক, বাউফল শাখা অথবা বিকাশ/নগদ: ০১৭০৩৯৮৩৩৮১।