default-image

এক তরুণী (২০) মেয়র হানিফ উড়ালসড়ক থেকে লাফ দিয়েছেন। বেঁচে আছেন কি না, কে জানে! এ অবস্থায় একজন রিকশাচালক ফোন করেন ৯৯৯–এ। পরে তরুণীকে উদ্ধার করে পুলিশ হাসপাতালে পৌঁছে দেয়। এখন ভালো আছেন তিনি।

এ বিষয়ে কথা হচ্ছিল রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মনিরুজ্জামানের সঙ্গে। গত শুক্রবার রাতে তিনি ছিলেন পুলিশের টহল দলে। হঠাৎ তাঁদের দলটিকে জানানো হয়, এক তরুণী উড়ালসড়কের সায়েদাবাদ অংশে পড়ে আছেন। তাঁরা আহত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে তরুণীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে সেখানে তাঁর সিটি স্ক্যান ও আনুষঙ্গিক পরীক্ষা–নিরীক্ষা করা হয়। চিকিৎসার পর তাঁকে ছেড়ে দেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকেরা।


রাতেই তরুণীকে তাঁর ভাড়া বাসায় পৌঁছে দেয় পুলিশ। পুলিশ বলছে, তরুণীর কথাবার্তা ছিল অসংলগ্ন। তিনি কিছুতেই তাঁর মা–বাবার ঠিকানা দেননি। অভিভাবক আর তাঁকে চায় না বলে অনুযোগের সুরে পুলিশকে জানান তিনি। কথায় কথায় তরুণী জানান বরিশাল থেকে কাজের সন্ধানে ঢাকায় এসেছিলেন। মনমতো কাজ পেয়েছিলেন কি না, পুলিশকে তা বলেননি। যে বাসায় তরুণী ভাড়া থাকেন, সেখানকার তত্ত্বাবধায়কের সঙ্গে কথা বলে তাঁর খোঁজখবর রাখছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0