বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে করোনার টিকা প্রদানের প্রথম পর্যায়ের কার্যক্রম শেষে আজ রোববার বিশ্ববিদ্যালয়টির ছাত্রকল্যাণ উপদেষ্টা অধ্যাপক আইনুল ইসলাম প্রথম আলোকে এ তথ্য জানান। বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট শিক্ষার্থী প্রায় ১৩ হাজার।
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ১ হাজার ৯৬০ শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হয়েছে।

সশরীর ক্লাস শুরুর পরিকল্পনা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে গত ২১ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্‌যাপন উপলক্ষে এ কার্যক্রম শুরু করা হয়। ঢাকা জেলা সিভিল সার্জনের সহায়তায় ও ছাত্রকল্যাণ দপ্তরের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা দেওয়া হয়।

এ ছাড়া শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা গ্রহণ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অস্থায়ী ভোটার নিবন্ধনকেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। কেন্দ্রটি থেকে ২৮০ নিবন্ধিত শিক্ষার্থীকে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে দ্রুত জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর সরবরাহ করা হবে। এর মধ্য দিয়ে নিবন্ধিত শিক্ষার্থীরা করোনার টিকার নিবন্ধনসহ সরকারি ২২টি সেবা নিতে পারবেন।

বিশ্ববিদ্যালয়টির ছাত্রকল্যাণ উপদেষ্টা আইনুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা অনেক উৎসাহ–উদ্দীপনার মাধ্যমে করোনার টিকা নিচ্ছে। এটা দেখে আমাদের কষ্ট সার্থক হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর পেয়ে আমাদের বাকি শিক্ষার্থীরাও দ্রুত করোনার টিকা নিয়ে নেবে। ফলে শতভাগ শিক্ষার্থীকে করোনার টিকার আওতায় আনা সম্ভব হবে। সবাই নিজ নিজ বিভাগে সশরীর ক্লাস শুরু করতে পারবে।’

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন